logo

মঙ্গলবার ১৩ মার্চ ২০১৮, ২৯ ফাল্গুন ১৪২৪, ২৪ জমাদিউস সানি ১৪৩৯

সাবেক গুপ্তচরের ওপর হামলার পেছনে রাশিয়া : থেরেসা মে
১৩ মার্চ, ২০১৮
আন্তর্জাতিক ডেস্ক
নার্ভ গ্যাস ব্যবহার করে সাবেক গুপ্তচর সারগেই স্ক্রিপাল ও তার মেয়ে ইউলিয়াকে হত্যা চেষ্টায় সরাসরি রাশিয়াকে দায়ী করলেন প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে।

গতকাল সোমবার পার্লামেন্টের এক সভায় ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বলেন, এ ঘটনাকে হুমকি হিসেবেই দেখছে যুক্তরাজ্য। এ সময় মস্কোর কাছে এ হামলার জন্য যথাযথ জবাব চেয়ে সময় বেঁধে দেন তিনি। বিবিসির প্রতিবেদনে এ খবর জানানো হয়েছে।

থেরেসা মে বলেন, ‘আমাদের বিরুদ্ধে এটি হয়তো রাশিয়ার সরাসরি হামলা ছিলো। অথবা রাশিয়া সরকার নিজের সামরিক বাহিনীর ওপর হস্তক্ষেপ হারিয়ে ফেলছেন।’ এ ঘটনায় মস্কোর কাছে যথাযথ বিবৃতি চেয়েছেন তিনি।

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, মঙ্গলবারের মধ্যে তারা (মস্কো) কোনো যুক্তি দেখাতে না পারে, তবে যুক্তরাজ্য একে স্বদেশবিরোধী বেআইনি পদক্ষেপ বলে বিবেচনায় নেবে।

এদিকে, ঘটনার পর দেশটিতে অবস্থানরত রাশিয়ার রাষ্ট্রদূতকে পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ে তলব করা হয়েছে।

গত রোববার বিকেলে রাশিয়ার সাবেক গুপ্তচর সের্গেই স্ক্রিপাল ও তার কন্যা ইউলিয়াকে হত্যার চেষ্টায় নার্ভ গ্যাস ব্যবহার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে ব্রিটিশ পুলিশ। গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে চিকিৎসাধীন রয়েছেন তারা। ব্রিটিশ পুলিশের সহকারী কমিশনার মার্ক রাউলি জানান, যে পুলিশ কর্মকর্তা সলসবারির ওই ঘটনাস্থলে প্রথম উপস্থিত হয়েছিলেন তিনিও গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি আছেন।

তদন্তের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে, ৬৬ বছর বয়সী স্ক্রিপাল একসময় রাশিয়ার সামরিক গোয়েন্দা সংস্থা জিআরইউয়ের কর্নেল ছিলেন। বিশ্বাসঘাতকতার দায়ে ২০০৬ সালে রাশিয়ায় তার ১৩ বছরের কারাদণ্ড হয়। ১০ মার্কিন গুপ্তচরের বিনিময়ে ২০১০ সালে তিনি ছাড়া পান। পরে স্ক্রিপাল যুক্তরাজ্যে পাড়ি জমান।

সর্বশেষ খবর

দিগন্ত পেরিয়ে এর আরো খবর

আজকের পত্রিকা. কমের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ নিষেধ

Developed by