logo

বৃহস্পতিবার, ১৪ জুন ২০১৮, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫, ২৮ রমজান ১৪৩৯

ট্রাম্প-কিম বৈঠকের প্রশংসায় উত্তর কোরিয়ার গণমাধ্যম
বৈঠককে বিজয় হিসেবে দেখছে পিয়ংইয়ং
১৪ জুন, ২০১৮
আন্তর্জাতিক ডেস্ক
সিঙ্গাপুরে ট্রাম্প-কিম বৈঠককে উত্তর কোরিয়া অত্যন্ত ইতিবাচক হিসাবে দেখছে। সেদেশের গণমাধ্যম একে তাদের বিজয় বলে মনে করছে। উত্তর কোরীয় মিডিয়া এর ভূয়সী প্রশংসা করে সম্মেলনকে ‘শতাব্দীর সেরা বৈঠক’ বলে অভিহিত করেছে। বিশেষ করে উত্তর কোরীয় অধিবাসীদের ধারণা এর মাধ্যমে তাদের দেশের ওপর যুক্তরাষ্ট্রের আরোপিত নিষেধাজ্ঞা বাতিল হয়ে যাবে।

সিঙ্গাপুরের সান্তোসা দ্বীপের ক্যাপেলা হোটেলে কিম-ট্রাম্পের এই বৈঠকের খবর বুধবার উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রীয় সংবাদ মাধ্যমের শীর্ষে থাকে। বৈঠকে দুই নেতা উভয় দেশের মাঝে উত্তেজনা কমাতে পারমাণবিক নিরস্ত্রীকরণের লক্ষ্যে তারা একটা যৌথ সংক্ষিপ্ত ঘোষণায় স্বাক্ষর করেন। ঐতিহাসিক এ সম্মেলনে উত্তর কোরিয়ার পরমাণু নিরস্ত্রীকরণে রাজির বিনিময়ে এক সময়ের শত্রু দেশের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। যুক্তরাষ্ট্রের কোনো প্রেসিডেন্টের সঙ্গে উত্তর কোরিয়ার কোনো শীর্ষ নেতার এটিই প্রথম সম্মেলন। অথচ, কয়েকমাস আগেও দুই নেতা পরস্পরকে ধ্বংস করে দেওয়ার হুমকি দিচ্ছিলেন। কিন্তু পরিস্থিতি এখন পাল্টেছে। সম্মেলনে উভয় নেতা এমন কিছু প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন যা যুক্তরাষ্ট্র-উত্তর কোরিয়া নতুন এক যুগের সূচনা হওয়ার ইঙ্গিত দিচ্ছে।

কোরীয় উপদ্বীপ পরমাণু অস্ত্রমুক্ত করার লক্ষ্য নিয়ে এ সম্মেলন শুরু হয়েছিল। সম্মেলনে ট্রাম্প যে কোনো উপায়ে কিমের কাছ থেকে সম্পূর্ণ পরমাণু নিরস্ত্রীকরণের প্রতিশ্রুতি আদায় করার চেষ্টা করবেন, বিশেষজ্ঞাদের পূর্বাভাস এমনই ছিল। তবে পুরনো মিত্র দক্ষিণ কোরিয়ার সঙ্গে সামরিক মহড়া বন্ধের প্রতিশ্রুতি দিয়ে দিনের সবচেয়ে বড় ‘চমক’ দিয়েছেন ট্রাম্প। সম্মেলনের পর দুই নেতার যৌথ বিবৃতিতে বলা হয়, “প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ডেমোক্রেটিক পিপলস রিপাবলিক অব কোরিয়ার (উত্তর কোরিয়ার আনুষ্ঠানিক নাম) নিরাপত্তা নিশ্চিত করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। আর চেয়ারম্যান কিম জং-উন কোরীয় উপদ্বীপকে সম্পূর্ণরূপে পরমাণু অস্ত্রমুক্ত করার যে দৃঢ় ও অবিচল প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তা পুনর্ব্যক্ত করেছেন।

সর্বশেষ খবর

দিগন্ত পেরিয়ে এর আরো খবর

আজকের পত্রিকা. কমের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ নিষেধ

Developed by