logo

সোমবার, ১ ফেব্রুয়ারি ২০১৬ . ১৯ মাঘ ১৪২২ . ২১ রবিউস সানি ১৪৩৭

উড়ালসড়কের নিচের রাস্তা মেরামতে আবারো তোড়জোড়
০১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬
পত্রিকা ডেস্ক
অবশেষে গুলিস্তান-যাত্রাবাড়ী উড়ালসড়কের (মেয়র মোহাম্মদ হানিফ ফ্লাইওভার) নিচের রাস্তা মেরামতে আবারও তোড়জোড় শুরু হয়েছে। জয়কালী মন্দির রোড থেকে যাত্রাবাড়ী পর্যন্ত রাস্তা মেরামতে এবার খরচ ধরা হয়েছে ২৩ কোটি টাকা। এর আগে তিন বছরে খরচ হয় ৮২ কোটি টাকা। তারপরও সড়কটি যান চলাচলের উপযোগী হয়নি।

অভিযোগ- যতবারই ওই রাস্তা মেরামত করা হয়েছে, ততবারই আগের অবস্থায় ফিরে এসেছে। নিম্নমানের নির্মাণসামগ্রী ব্যবহারই এর কারণ বলে জানা গেছে। তবে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) কর্মকর্তারা দাবি করেন, উড়ালসড়কের স্তম্ভ সুরক্ষার (পিয়ার প্রোটেকশন) নামে যে সীমানাদেয়াল রয়েছে, সেগুলোতে পানি নিষ্কাশনের পাইপ সঠিক কাজ করে না। যার ফলে বৃষ্টি হলেই রাস্তায় পানি জমে বিটুমিন নষ্ট হয়ে যায়। আবার উড়ালসড়কের পানি সরাসরি নিচের রাস্তায় পড়ে বড় বড় গর্ত সৃষ্টি করে।

সূত্র জানায়, উড়ালসড়কের নিচের রাস্তা মেরামত, ফুটপাত ও ড্রেনেজ লাইন নির্মাণে ২০১৩ সালে খরচ করা হয় প্রায় ৬২ কোটি টাকা। এর মধ্যে ওই সময়ে রাস্তায় বিটুমিন ব্যবহারের কাজেই খরচ হয় ১৪ কোটি টাকা। পরে গত বছরের মার্চ পর্যন্ত আরও প্রায় ২০ কোটি টাকা খরচ করা হয়। সিটি করপোরেশন নির্বাচনের পর খোয়া ও বালু ফেলে রাস্তার কিছু সংস্কার করা হয়। কিন্তু এ কাজ সপ্তাহ খানেকের মধ্যে আবারও খারাপ হয়ে যায়। গত জুনে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) প্রকৌশল বিভাগ থেকে বলা হয়েছিল, বর্ষা মৌসুম শেষ হলে জয়কালী মন্দির সড়ক থেকে যাত্রাবাড়ী পর্যন্ত সড়কটি মেরামতের কাজ শুরু হবে। তবে তা আর হয়নি।

ডিএসসিসির মেয়র সাঈদ খোকন বলেন, চলতি মাসেই অনানুষ্ঠানিকভাবে কাজ শুরু হয়ে গেছে। পরিকল্পনা মন্ত্রণালয় সম্প্রতি ২৩ কোটি টাকা অনুমোদন করেছে। দরপত্র হয়ে গেছে। ভালোভাবে মেরামত কাজ চলবে।

সরেজমিনে দেখা যায়, জয়কালী মন্দির রোড এলাকায় হোটেল সুপার স্টার থেকে পূর্বদিকে বেস্টওয়ে পর্যন্ত ফুটপাতের ব্লকগুলো ওঠানো হচ্ছে। শ্রমিকেরা বলেন, রাস্তা মেরামতের পাশাপাশি ফুটপাতও মেরামত করা হবে। তারই প্রস্তুতি চলছে। তবে ফুটপাতের সামনের রাস্তায় একটু পরপর বিশাল গর্ত। দেখা গেল একেকটি যানবাহন যাচ্ছে, চারদিক ধুলায় ভরে যাচ্ছে। রিকশা-অটোরিকশা চলতে গিয়ে উল্টে যাওয়ার উপক্রম হচ্ছে। লারমিন স্ট্রিটের বাসিন্দা শ্রাবণী বলেন, এই রাস্তায় চলতে গিয়ে প্রায়ই অসুস্থ হয়ে পড়ি। ঢাকা শহরে এর চেয়ে খারাপ ও বিপজ্জনক রাস্তা আর নেই।

সর্বশেষ খবর

নগর মহানগর এর আরো খবর

আজকের পত্রিকা. কমের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ নিষেধ

Developed by