logo

শনিবার ১৩ জানুয়ারি ২০১৮, ৩০ পৌষ ১৪২৪, ২৫ রবিউস সানি ১৪৩৯

৮৬১ প্রবাসীর মরদেহ বহনে সাড়ে ৮ কোটি টাকা ছাড়
১৩ জানুয়ারি, ২০১৮
নিজস্ব প্রতিবেদক
কোনো ভাড়া না নিয়ে গেলো ২০১৬-১৭ অর্থবছরে ৮৬১ প্রবাসীর মরদেহ দেশে এনেছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স। এসব মরদেহ বহনে বিমানটির প্রায় সাড়ে আট কোটি টাকা আয় করা সম্ভব হতো। কিন্তু বিমান কর্তৃপক্ষ কোনো অর্থ নেয়নি।

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স সূত্রে জানা গেছে, এর মধ্যে আবুধাবি থেকে ২৭ জন, দোহা থেকে ৮ জন, দাম্মাম থেকে ৯৩ জন, দুবাই থেকে ৫৯ জন, কুয়ালালামপুর থেকে ৬২ জন, জেদ্দা থেকে ৩২ জন, কুয়েত থেকে ৯১ জন, মাস্কট থেকে ১৭৩ জন এবং রিয়াদ থেকে ৩১৬ জন প্রবাসীর মরদেহ দেশে এনেছে।

এয়ারলাইন্সের ইতিহাসে মানবতার কল্যাণে এটিকে বিরল দৃষ্টান্ত মনে করছে প্রতিষ্ঠানটি।

প্রতিষ্ঠানটি বলছে, প্রতিষ্ঠার চার দশক পর থেকে বিমান বাংলাদেশ দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়ন ও সামাজিক দায়বদ্ধতার ক্ষেত্রে এক অনুকরণীয় দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে। এছাড়া আন্তর্জাতিক সংকটে, যুদ্ধাবস্থায়, বিপদগ্রস্ত বাংলাদেশি কর্মীদের দ্রুততম সময়ে দেশে ফিরিয়ে আনার পাশাপাশি নানা কারণে মৃত প্রবাসীদের মরদেহ বিনা খরচে বহন করে আসছে।

বিমানের জনসংযোগ বিভাগের মহাব্যবস্থাপক শাকিল মেরাজ বলেন, বিমান বিনা ভাড়ায় প্রবাসী শ্রমিকদের মরদেহ বহন করে। একজনের মরদেহ বহন করতে অন্য এয়ারলাইন্সগুলোকে লক্ষাধিক টাকা পরিশোধ করতে হয়।

তিনি জানান, ৮৬১ জন প্রবাসীর মরদেহ বহনে বিমান স্বজনদের কাছ থেকে কোনো অর্থ নেয়নি। যেখানে অর্থ নিলে বিমানের মরদেহ পরিবহন খাত থেকে ৮ কোটি ৪০ লাখ ৮৭ হাজার ৪৬০ টাকা আয় করা সম্ভব হতো।

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনন্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও এএম মোসাদ্দিক বলেন, প্রবাসীদের পাঠানো রেমিটেন্স জাতীয় উন্নয়নের অগ্রগতিকে আরো ত্বরান্বিত করছে। প্রবাসী কর্মীদের বিদেশযাত্রাকে সহজ ও নিরাপদ রাখাকে বিমান বাংলাদেশ সবসময় অগ্রাধিকার দিয়ে থাকে।

সর্বশেষ খবর

অর্থ ও বাণিজ্য এর আরো খবর

আজকের পত্রিকা. কমের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ নিষেধ

Developed by