logo

শুক্রবার ১৩ অক্টোবর ২০১৭, ২৯ আশ্বিন ১৪২৪, ২২ মহররম ১৪৩৮

শিরোনাম

বিশ্বকাপ পাওনা রোনালদোরও
১৩ অক্টোবর, ২০১৭
স্পোর্টস ডেস্ক
লিওনেল মেসির স্বর্গীয় বাঁ পায়ের হ্যাটট্রিকে ইকুয়েডরকে ৩-১ গোলে হারিয়ে রাশিয়া বিশ্বকাপে খেলা নিশ্চিত করেছে আর্জেন্টিনা। স্বাভাবিকভাবেই খুদে জাদুকরের প্রতি আর্জেন্টাইনদের প্রত্যাশা বেড়েছে। সবার চাওয়া, এবার দেশকে একটি বিশ্বকাপ এনে দিক মেসি। স্বীকৃতি পাক সর্বকালের সেরার।

তবে কোচ হোর্হে সাম্পাওলির দাবি, আর্জেন্টিনাকে বিশ্বকাপ জেতাতেই হবে এমন কোনো দায়ভার মেসির নেই। সে ফুটবলের কাছে ঋণী নয়। ফুটবলই তার কাছে ঋণী। এ কারণেই ফুটবলের বরপুত্রের বিশ্বকাপ জেতা উচিত।

এবার একই দাবি তুলে প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম মার্কা। তাদের মতে, শুধু মেসি নন, বিশ্বকাপ পাওনা ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোরও।

আসছে বছর পর্তুগিজ উইঙ্গারের বয়স হবে ৩৩। সেই হিসেবে আসছে বিশ্বকাপই তার শেষ সুযোগ। কারণ, বয়সের ভারে কাতার বিশ্বকাপে তার খেলা সম্ভব নাও হতে পারে! ক্যারিয়ারজুড়েই মেসির সঙ্গে সিআরসেভেনের তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতা হয়েছে। বলা যায়, এটি ম্যাজিক বয়েরও শেষ সুযোগ। তারা দু’জনই এ প্রজন্মের সেরা খেলোয়াড়। তাদের বিশ্বকাপ জেতার সম্ভাব্য সেরা সুযোগ ২০১৮ রাশিয়াতে।

মার্কায় মতাশ্রয়ী প্রতিবেদনটি লিখেছেন লেখক হুয়ানমা রদ্রিগেজ। তার দৃষ্টিতে-এটাই রোনালদোর শেষ সুযোগ। তার পক্ষে কোনো কিছুই অসম্ভব নয়। ২০২২ বিশ্বকাপেও তাকে দেখা যেতে পারে। তবে বাস্তবতা হলো, আসছে বিশ্বকাপই হবে পর্তুগিজ অধিনায়কের শেষ বিশ্বকাপ। এ নিয়ে কোনো বিতর্ক নেই, সর্বকালের সেরা ৩ বা ৪ জন ফুটবলারের একজন তিনি। বিশ্বকাপ জিতে ক্যারিয়ার শেষ করাটাই তার সঙ্গে যায়।

রদ্রিগেজের মতে, রোনালদোর রক্তে মিশে আছে ফুটবল। খেলাটি তার আবেগ ও প্রেষণা। সে একজন আদর্শ খেলোয়াড়। প্রতিটি মুহূর্তে ভালো খেলার জন্য অনুশীলনে ঘাম ঝরায়। অর্জিত সাফল্য নিয়ে পড়ে থাকে না। ও কোটি মানুষের আদর্শ। বিশ্বসেরা ক্লাবে খেলে। তবে তার জাতীয় দল পর্তুগাল গড়পড়তা মানের। এ দল নিয়েই ২০১৬ ইউরো জিতেছে।

রোনালদো আর সব ফুটবলারের চেয়ে ভিন্ন। বিশ্বের প্রায় সব তারকাই জাতীয় দলে যোগ্য সতীর্থের সমর্থন পায়। তবে পর্তুগাল দলে সে সম্পূর্ণ একা। অন্য সেরা তারকা খারাপ করলে দেশে সমালোচনার শিকার হতে হয়। কিন্তু তাকে নিয়ে পর্তুগিজরা মেতে থাকে। তার ছন্দে ছোটে পুরো দল। এ গড়পড়তা মানের দল নিয়ে বিশ্বকাপ জিতলে ফুটবল ইতিহাসে তার নাম স্বর্ণাক্ষরে লেখা থাকবে। চারবারের ফিফা বর্ষসেরার কাছ ফুটবলই ঋণী। দ্রুত ফুটবলের এ ঋণ পরিশোধ করে দেয়া উচিত।

সর্বশেষ খবর

খেলায় খেলায় এর আরো খবর

আজকের পত্রিকা. কমের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ নিষেধ

Developed by