logo

সোমবার ০৪, জুলাই ২০১৬ .২০ আষাঢ় ১৪২৩ . ২৯ রমজান ১৪৩৭

ঘুমন্ত আওয়ামী লীগ নেতাকে গুলি করে হত্যা
০৪ জুলাই, ২০১৬
কক্সবাজার সংবাদদাতা:
কক্সবাজারের টেকনাফে আওয়ামী লীগের স্থানীয় এক নেতাকে ‘ঘুমন্ত অবস্থায়’ গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। সোমবার রাত দেড়টার দিকে টেকনাফ সদর ইউনিয়নের নতুন পল্লান পাড়ায় এ ঘটনায় আহত হয়েছেন তার স্ত্রী।

নিহত সিরাজুল ইসলাম (৬০) টেকনাফ সদর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি। তার স্ত্রী ইয়াছমিন আক্তার ওরফে জোহরাকে (৫২) গুলিবিদ্ধ অবস্থায় টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

টেকনাফ থানার ওসি মো. আব্দুল মজিদ জানান, ক্ষমতাসীন দলের এই স্থানীয় নেতাকে ‘পূর্ব বিরোধের জের ধরে’ হত্যা করা হয়েছে বলে সন্দেহের কথা পুলিশকে বলেছেন নিহতের স্বজনরা। তবে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানাতে পারেননি ওসি।

স্বজনদের বরাত দিয়ে তিনি বলেন, সিরাজুল রাতে শোবার ঘরের জানালা খোলা রেখে ঘুমিয়ে পড়েন। একই খাটে তার স্ত্রীও ঘুমিয়ে ছিলেন।

“রাত দেড়টার খোলা জানালা দিয়ে ঘুমন্ত দম্পতিকে গুলি করা হয়। এ সময় গুলিবিদ্ধ জোহরার চিৎকারে বাড়ির লোকজন জেগে উঠলে খুনিরা পালিয়ে যায়।”

পরে স্বজনরা ওই দম্পতিকে উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক সিরাজুলকে মৃত ঘোষণা করেন।

তার লাশ ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালে পাঠানো হবে বলে জানিয়েছেন ওসি।

স্বজনদের বরাত দিয়ে তিনি বলেন, “টেকনাফের পল্লান পাড়ার বাসিন্দা আব্দুল হাকিমের সঙ্গে সিরাজুলের ব্যক্তিগত বিরোধ ছিল। হাকিম মিয়ানমারের নাগরিক হলেও বহু বছর ধরে পল্লান পাড়ায় বসবাস করে আসছেন। তিনিই লোক পাঠিয়ে এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছেন বলে স্বজনদের সন্দেহ। তবে তাদের মধ্যে কী নিয়ে সমস্যা ছিল তা তাৎক্ষণিকভাবে জানা সম্ভব হয়নি।”

পুলিশ খুনিদের গ্রেপ্তারে অভিযান চালাচ্ছে বলে জানান ওসি।

সর্বশেষ খবর

আজকের পত্রিকা. কমের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ নিষেধ

Developed by