logo

শনিবার ০১ এপ্রিল ২০১৭,১৮ চৈত্র ১৪২৩,০৩ রজব ১৪৩৮

শিরোনাম

বাংলাদেশ-ভারত প্রতিরক্ষা চুক্তি রাজনীতি নির্ভর : শাহরিয়ার কবির
০১ এপ্রিল, ২০১৭
নিজস্ব প্রতিবেদক
ভারত-বাংলাদেশ প্রতিরক্ষা চুক্তির অন্তর্নিহিত বিষয়ে অনুধাবন ও উল্লেখ না করে দেশ বিক্রির ধোঁয়া তুলে সম্পর্ক উন্নয়নের বিরোধীতা করা হয়েছে। আমার মতে, বিষয়টি যতটা সামরিক স্বার্থসংশ্লিষ্ট তার চেয়ে বেশি রাজনৈতিক নির্ভর বলে মন্তব্য করেছেন একাত্তরের ঘাতক দালার নির্মূল কমিটির সভাপতি শাহরিয়ার কবির।

শনিবার গুলাশানে হোটেল লেকশো’তে আয়োজিত বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক বিষয়ক গোল টেবিল বৈঠকে তিনি এ মন্তব্য করেন।

শাহরিয়ার কবির আরও বলেন, ভারত-বাংলাদেশ সম্পর্কের ইতিবাচক ও নেতিবাচক; উভয়দিকই সম্পূর্ণভাবে রাজনৈতিক। যা ৭১’এর মুক্তিযুদ্ধের মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছে।

তিনি বলেন, আমরা যখন মুক্তিযুদ্ধ করেছিলাম তখন পাকিস্তানি সামরিক জান্তা এবং তাদের এদেশিও সহযোগি জামায়াতি ইসলাম এবং অন্যান্য সহযোগিরা পরিষ্কারভাবে বলেছিলেন। যদি পাকিস্তান না থাকে তবে দুনিয়ার বুকে ইসলামের নাম নিশানা থকবে না। একই কথা বলেছিলেন জামায়াতি ইসলামের প্রধান গোলাম আজোমও।

শাহরিয়ার আরও বলেন, তারা ৭১’ সালে পাকিস্তান এবং ইসলামকে এক করে দেখেছেন। যার ফলে আমাদের দেশে ইসলামের নামে গণহত্যাসহ অনেক মানবতাবিরোধী অপরাধ সংঘঠিত হয়েছে। অন্যদিকে মুক্তিযোদ্ধাদের বলা হয়েছে ইসলামের শত্রু, পাকিস্তানের শত্রু এবং ভারতের এজেন্ট। ৭১’ এর মুক্তিযুদ্ধের মধ্য দিয়েই প্রমাণ হয়েছে গেছে বাংলাদেশের শক্র কে, আর বন্ধু কে।

৭৫’ এর পর থেকে বাংলাদেশের মানুষের মনোজগতে পাকিস্তান পন্থার মৌলবাদ সাম্প্রাদায়িকতার আধিপত্য তৈরি হয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমাদের সমস্ত কাজ কর্মে এই পন্থার প্রতিফলন দেখতে পাই। বিশেষ করে জামায়াত বিএনপি যখন যেকোন বিষয় নিয়ে কথা বলে তখন তা আরও স্পষ্ট হয়ে যায়।

তিনি বলেন, আজকে বেগম জিয়া সামরিক চুক্তি নিয়ে কথা বলছেন, অথচ তিনি একই কথা পার্বত্য শান্তি চুক্তি সময়েও বলেছিলেন। তাই আমাদের কথা খুব পরিষ্কার যে, এগুলোকে শক্ত হাতে মোকাবেলা করতে হবে। বাংলাদেশের সমাজ রাজনীতি যে পাকিস্তানিকরণ প্রক্রিয়া তা বন্ধ করতে হবে।

তিনি এও বলেন, সম্প্রতি বাংলাদেশে যে জঙ্গি হামলা হচ্ছে সেটাও পাকিস্তানের স্বার্থে। পাকিস্তান বাংলাদেশকে আবার একটি মুসলিম রাষ্ট্র বানাতে চায়। দেশকে আফগানিস্তান কিংবা জিয়ার পাকিস্তানের মতো বানাতে চায়। এখন আমরা সেটা হতে দেবো কি না এটাই প্রশ্ন। কিন্তু আমি বলবো যে, না এটা আমরা কিংবা আমাদের বর্তমান সরকার এটা হতে দিবে না।

সর্বশেষ খবর

আজকের পত্রিকা. কমের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ নিষেধ

Developed by