logo

বুধবার ১৭ মে ২০১৭, ৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৪, ২০ শাবান ১৪৩৮

শিরোনাম

১৫ দিনের সময় চান আপন জুয়েলার্সের মালিক
১৭ মে, ২০১৭
নিজস্ব প্রতিবেদক
ব্যবসায়িক কাগজপত্র দেখানোর জন্য শুল্ক গোয়েন্দা বিভাগের কাছে আরো ১৫ দিনের সময় চেয়েছেন আপন জুয়েলার্সের মালিক দিলদার আহমেদ।

এসময় তিনি দেশবাসীর কাছে ক্ষমা চেয়ে বলেন, তার ব্যবসা বৈধ এবং তিনি এই পথেই দীর্ঘ ৪৫ বছর ব্যবসা করে আসছেন।দেশের সকল স্বর্ণ ব্যবসায়ী একই পথে ব্যবসা করেন। আমি যদি অন্যায় করি তাহলে অন্য সবাই অন্যয় করছে।

বুধবার বেলা ১২টায় রাজধানীর কাকরাইলে অবস্থিত শুল্ক গোয়েন্দা দপ্তরে ব্যবসায়িক কাগজপত্র নিয়ে আপন জুয়েলার্সের মালিক দিলদার আহমেদ ও তার দুই ভাই গুলজার আহমেদ ও আজাদ আহমেদ শুল্ক গোয়েন্দা সদর দফতরে হাজির হয়ে এসব কথা বলেন।

শুল্ক গোয়েন্দা দপ্তর তার আবেদনের প্রেক্ষিতে প্রয়োজনীয় কাগজ, মজুদ স্বর্ণ, দলিলাদিসহ পুনরায় আগামী ২৩ মে ২০১৭ তারিখে সকাল ১১টায় স্বশরীররে উপস্থিতের দিন ধার্য করেছে।উপস্থিত হয়ে তাদের প্রতিষ্ঠানকে মজুদ স্বর্ণ ও ডায়মন্ডের ব্যাপারে শুনানিতে অংশ গ্রহণ করার কথা বলা হয়েছে।

তবে আপন জুয়েলার্সের প্রতিটি শাখায় রিপিয়ারিং এবং এক্সচেঞ্জ-এ গ্রহকরা যেসকল জিনিস রেখেছিলো তা আগামী সোমবার ২২ মে দুপুর ২টায় ফেরত দিয়ে দিবে বলে জানায় জুয়েলার্সের মালিকপক্ষ।

একইদিনে দ্য হোটেল রেইনট্রিকে তলব করা হলেও হোটেলটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক আদনান হারুণের পক্ষ থেকে আইনজীবী এডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির ও রিয়াজ আহমেদ উপস্থিত হন।

শুল্ক গোয়েন্দার কাছে আইনজীবী জাহাঙ্গীর কবির বলেন, রেইন ট্রি’র মালিক অসুস্থ থাকায় তলবে উপস্থিত হতে পারিনি। এজন্য শুল্ক গোয়েন্দাদের কাছে এক মাসের তলবের সময় বাড়ানোর অনুরোধ জানালেও শুল্ক গোয়েন্দার ডিবি আগামী ২৩ মে রেইন ট্রি’র কর্তৃপক্ষকে হাজির হওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। এসময় আইনজীবীরা ‘রেইন ট্রি’ ব্যবস্থাপনা পরিচালকের একটি রেকর্ড বার্তা শোনান।

গত ১৫ মে শুল্ক গোয়েন্দার অভিযানে ব্যাখ্যাহীনভাবে মজুদ স্বর্ণ ও ডায়মন্ড আটকের ঘটনায় আপন জুয়েলার্সের মালিকে শুল্ক গোয়েন্দা সদর দফতরে তলব করা হয়।

গত রোববার শুল্ক গোয়েন্দার দল আপন জুয়েলার্সের গুলশান, উত্তরা, মৌচাক ও সীমান্ত স্কোয়ারের শাখায় অভিযান চালিয়ে ২৮৬ কেজি স্বর্ণ ও ৬১ গ্রাম ডায়মন্ড ব্যাখ্যাহীনভাবে মজুদ রাখার দায়ে সাময়িক আটক করে। এগুলো আইন অনুসারে সিলগালা করে তাদের হেফাজতে দেয়া হয়।

গুলশানের সুবাস্তু টাওয়ারে অন্য আরেকটি শাখা বন্ধ পাওয়ায় সবার উপস্থিতিতে ইনভেন্টরি করার নিমিত্ত সিলগালা করা হয়েছে।উক্ত তলবে সাময়িকভাবে আটক এই মূল্যবান সামগ্রী সরবরাহের বৈধতা নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।

এছাড়া দ্য রেইনট্রি হোটেলে শুল্ক গোয়েন্দার দল ১০ বোতল বিদেশি মদ উদ্ধার করে। এই মদ উদ্ধারের সময় হোটেল কর্তৃপক্ষ বারের লাইসেন্স দেখাতে পারেননি। অবৈধভাবে বিদেশি মদ রাখার দায়ে হোটেল কর্তৃপক্ষকেও জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।

এর আগে আপন জুয়েলার্সের মালিক দিলদার আহমেদ ও শাফাত আহমেদের ব্যাংক হিসাব চেয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকে চিঠি পাঠায় বাংলাদেশ ফিন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিট (বিএফআইইউ)।

গত ২৮ মার্চ বনানীতে দ্য রেইনট্রি হোটেলে বন্ধুর মাধ্যমে এক জন্মদিনের অনুষ্ঠানে যোগ দিতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার হন বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই ছাত্রী। এরপর অভিযুক্তরা ওই ঘটনার ভিডিও ধারণ করে রাখে।

যাদের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে, তাদের একজন আপন জুয়েলার্সের মালিক দিলদার আহমেদ সেলিমের ছেলে সাফাত আহমেদ।প্রাণনাশসহ বিভিন্ন হুমকি উপেক্ষা করে ঘটনার একমাসের বেশি দিন পর ওই দুই তরুণী ৪ মে বনানী থানায় ধর্ষণের অভিযোগে মামলা করতে যান।

তবে থানা পুলিশ মামলা না নিয়ে তাদেরকে হয়রানী করে বলে অভিযোগ ওঠার ৪৮ ঘণ্টা পর ৬ মে ওই অভিযোগ লিপিবদ্ধ করে।

গত ১১ মে সাফাত ও তার বন্ধু সাদমান সাকিফকে সিলেট থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। এরপর দিন আদালতে তোলা হলে আদালত সাফাতকে ৬ দিন এবং সাদমান সাকিফকে ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

সর্বশেষ খবর

আজকের পত্রিকা. কমের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ নিষেধ

Developed by