logo

শুক্রবার ১৯ মে ২০১৭, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৪, ২২ শাবান ১৪৩৮

শিরোনাম

রিমান্ডে নামিদামি মডেলের গোপন তথ্য ফাঁস করল নাঈম
১৯ মে, ২০১৭
নিজস্ব প্রতিবেদক
সিনে জগতের অনেক নামি মডেলের গোপন তথ্য এখন গোয়েন্দাদের হাতে। বনানীর দুই ছাত্রী ধর্ষণ মামলার অন্যতম আসামি নাঈম আশরাফ রিমান্ডে গোয়েন্দাদের এসব মডেলের চাঞ্চল্যকর দিয়েছেন।

ওই দিন ‘দ্য রেইন ট্রি’ হোটেলে কী ঘটেছিল তার বিবরণ দিয়ে ধর্ষণের কথা স্বীকার করেছেন নাঈম। আলোচিত এ আসামি সাতদিনের রিমান্ডে রয়েছেন।

নাঈমকে জিজ্ঞাসাবাদ করছেন এমন এক পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, ‘‘ওইদিন ‘দ্য হোটেল রেইন ট্রি’র ঘটনা সম্পর্কে নাঈম আশরাফের কাছে জানতে চাওয়া হয়। নাঈম ওই রাতের বিবরণ দিয়েছেন।’’

গোয়েন্দা সূত্র জানায়, ‘‘ধর্ষণের ঘটনার প্রায় দু’সপ্তাহ আগে বন্ধু সাদমানের মাধ্যমে রাজধানীর একটি হোটেলে ওই দুই তরুণীর সঙ্গে তাদের পরিচয় ঘটে। এরপর প্রায়ই তাদের সঙ্গে দেখা হতো। জন্মদিনের অনুষ্ঠানে সাফাত তাদের নিয়ে পার্টি করার কথা বললে পাঁচ আসামি আয়োজনটি করেন। মদ খাওয়ার পর সাফাতকে নিয়ে দুই তরুণীকে ধর্ষণ করার কথা স্বীকার করেছেন নাঈম।’’

‘‘সিনে জগতের নামি-দামি মডেলের সঙ্গে কিভাবে পরিচয়’’ গোয়েন্দাদের এমন প্রশ্নে নাঈম জানান, ‘‘ইভেন্ট করতে গিয়েই তাদের সঙ্গে পরিচয় হয়।’’

সূত্র জানায়, ‘‘নানা প্রশ্নের মাঝে সিনে জগতের অনেক নামি-দামি মডেল সম্পর্কে নানা বিষয় নিয়ে কথা বলেছেন নাঈম। এমনকি সাফাতকে সরবরাহ করা অনেক মডেলের নামও বলেছেন। অনেক মডেলকে সাফাতের শয্যা সঙ্গী করার কথাও স্বীকার করেন নাঈম। ৭ দিনের রিমান্ডে প্রথমদিন শেষ হয়েছে। রিমান্ডের বাকি দিনে আরো চাঞ্চল্যকর অনেক তথ্য পাওয়া যাবে বলে মনে করা হচ্ছে। এছাড়াও আরো কিছু তথ্য পাওয়া গেছে। যেগুলো তদন্তের স্বার্থে এখুনি প্রকাশ করা হচ্ছে না।’’

জানা যায়, ‘সিরাজগঞ্জের কাজীপুরের গ্রামের বাড়িতে নাঈম আশরাফের নাম হালিম। ঢাকায় এসে নিজের নাম পাল্টে হন নাঈম আশরাফ। এই নামে ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট প্রতিষ্ঠান খুলে ব্যবসা চালিয়ে আসছিলেন। চতুর প্রকৃতির নাঈম আশরাফ এ পর্যন্ত দুটি বিয়ে করেছেন। ‘ই-মেকার্স’ নামে একটি ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট প্রতিষ্ঠান খুলে ২০১৪ সালে ভারতের জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী অরিজিৎ সিংয়ের কনসার্টের আয়োজন করেন। এ ছাড়া গত বছর ভারতের আরেক শিল্পী নেহা কাক্কারকে নিয়ে ‘নেহা কাক্কার লাইভ ইন কনসার্ট’ অনুষ্ঠানের আয়োজনও করেন নাঈম আশরাফ। এসব অনুষ্ঠান আয়োজনের কারণে নাঈম আশরাফের সঙ্গে গ্ল্যামার জগতের নায়িকা, গায়িকা, মডেলসহ অনেক প্রভাবশালী ব্যক্তির সখ্য গড়ে ওঠে। তাদের সঙ্গে মাঝে মধ্যেই সেলফি তুলে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে দিতেন নাঈম আশরাফ।

আলোচিত ধর্ষক নাঈম আশরাফের সঙ্গে ছবি ভাইরালের ঘটনায় মডেল-অভিনেত্রী মৌসুমি হামিদ স্ট্যাটাস দেন, ‘আমরা যারা মিডিয়াতে কাজ করি, প্রতিনিয়ত আমাদের অনেক কাজের জন্য অনেকে কল দেয়। কথা বলে। দেখা যায় সব কাজ হয় না। কিন্তু পরিচয় হয়। দ্বিতীয়বার কাজের জন্য একই মানুষ যদি কল দেয় বা দেখা করতে আসে তখন যদি সে একটা ছবি তুলতে চায় তখন কি না করা যায়। রেপিস্ট এর কপালে কি লেখা থাকে ও রেপিস্ট?’

গত ২৮ মার্চ রাজধানীর বনানীর ‘দ্য রেইন ট্রি’ হোটেলে আপন জুয়েলার্সের মালিকের ছেলে সাফাত আহমেদের জন্মদিনে যোগ দিয়ে ধর্ষণের শিকার হন বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই ছাত্রী। ওই ঘটনার ৪০ দিন পর ৬ মে সন্ধ্যায় বনানী থানায় পাঁচজনকে আসামি করে মামলা করেন ধর্ষিত দুই তরুণীর একজন।

এজাহারভুক্ত পাঁচ আসামি হলেন, সাফাত আহমেদ, সাদমান সাকিফ, নাঈম আশরাফ, সাফাতের গাড়িচালক বিল্লাল ও তার দেহরক্ষী আবুল কালাম আজাদ।

আসামিদের মধ্যে সাফাত ও সাদমান সিলেট থেকে ও গাড়িচালক বিল্লাল ও তার দেহরক্ষী আবুল কালাম আজাদ গ্রেপ্তার হয় ঢাকায়। গত ১৮ মার্চ রাতে ঢাকার মুন্সিগঞ্জের লৌহজংয়ে অভিযান চালিয়ে নাঈম আশরাফ ওরফে নাঈম ওরফে এইচএম হালিমকে গ্রেপ্তার করে পুলিশের বিশেষ টিম ও ডিবি পুলিশের একটি দল। গ্রেপ্তারের পর তাকে ডিবি কার্যালয়ে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করেন ওমেন সাপোর্ট অ্যান্ড ইনভেস্টিগেশন্সের তদন্ত কর্মকর্তারা। জিজ্ঞাসাবাদে নাঈম ধর্ষণের বিষয়টি স্বীকার করেছেন।

সর্বশেষ খবর

আজকের পত্রিকা. কমের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ নিষেধ

Developed by