logo

বুধবার ১১ অক্টোবর ২০১৭, ২৭ আশ্বিন ১৪২৪, ২০ মহররম ১৪৩৮

শিরোনাম

আন্তর্জাতিক চাপ বাড়ালে রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধান সম্ভব: শামছুল হুদা
১১ অক্টোবর, ২০১৭
নিজস্ব প্রতিবেদক
নাগরিক কমিশনের চেয়ারম্যান বিচারপতি শামছুল হুদা বলেছেন, আন্তর্জাতিক চাপ বাড়ালে রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধান সম্ভব। বুধবার জাতীয় প্রেসক্লাবে একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি আয়োজিত এক সংবাদ সন্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

আন্তর্জাতিক চাপ আরো বৃদ্ধি করে এই সমস্যা নির্মূল সম্ভব মনে করে তিনি বলেন, ১৯৭৮ সালে প্রথম বাংলাদেশে রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশ শুরু হয়, বেশ কয়েক ধাপে রোহিঙ্গা প্রবেশ করেছে যা এদেশে বর্তমানে ব্যাপক আকার ধারণ করেছে। তাই আন্তর্জাতিক চাপ আরো বৃদ্ধি করা খুবই প্রয়োজন।

অনুষ্ঠানে ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির সভাপতি সাংবাদিক শাহরিয়ার কবির বলেন, রোহিঙ্গারা দীর্ঘদিন বাংলাদেশে থাকলে বিস্ফোরণ ঘঠবে না, তা বলা যাবে না, তারা বাংলাদেশে থাকলে বাংলাদেশসহ ভারত, পাকিস্তান, চীন এসব দেশও ক্ষতিগ্রস্ত হবে।

তিনি বলেন, কেন মিয়ানমার এই রোহিঙ্গা সংকটের সমস্যা সমাধান করছে না সেটা আমাদের বোধগাম্য নয়।

তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশের কূটনৈতিক অবস্থা বাড়ানোর পাশাপাশি বাংলাদেশের বৌদ্ধদের নিয়ে সম্মিলিত একটা কমিটি করে মিয়ানমারে পাঠানোর ব্যবস্থা করতে হবে।

রোহিঙ্গাদের গণহত্যা ও সন্ত্রাস তদন্ত করতে ৩৩ সদস্যের নাগরিক কমিশন গঠন করেছে একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি। এ কমিশন ঘোষণা করেন কমিটির সভাপতি শাহরিয়ার কবির।

কমিশনে বিচারপতি শামসুল হুদাকে চেয়ারম্যান ও বিচারপতি শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিককে সদস্য সচিব করা হয়েছে। কমিশনের অন্যান্য সদস্যদের মধ্যে রয়েছেন, বিচারপতি মোহাম্মদ গোলাম রব্বানি, বিচারপতি কাজী এবাদুল হক, বিচারপতি মমতাজ উদ্দিন, বিচারপতি সৈয়দ আমিরুল ইসলাম, ব্যারিস্টার শফিক আহমেদ, অধ্যাপক অজয় রায়, অধ্যাপক আনিসুজ্জামান, সাংবাদিক শাহরিয়ার কবির।

একইভাবে এ কমিশনকে সহযোগিতা করতে সাংবাদিক, আইনজীবী ও মানবাধিকার কর্মীদের নিয়ে শতাধিক সদস্যের একটি সচিবালয় গঠন করা হয়েছে। এ সচিবালয়ের সমন্বয়কারীর দায়িত্বে থাকবেন ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির সাধারণ সম্পাদক কাজী মুকুল।

কমিশন কক্সবাজারে একটি গণশুনানির আয়োজন করবে বলে জানান শাহরিয়ার কবির। এছাড়া তিনি বলেন, তিনটি বিষয় নিয়ে কাজ করবে কমিশন। গণহত্যা কিংবা জাতিগত হত্যাকাণ্ড কি না, সেখানে কোন সন্ত্রাসী সংগঠন কতটা সক্রিয় এবং তৃতীয় কোনো দেশ থেকে আন্তর্জাতিক আদালতে এ হত্যাকাণ্ডের বিচার চাওয়া হবে।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত অতিথিরা নব গঠিত কমিশন সম্পর্কে তাদের মতামত ও পরামর্শ দেন। এছাড়া কমিশন দ্রুত প্রতিবেদন প্রস্তুত করে জমা দেবেন বলেও আশা প্রকাশ করেন বক্তারা।

সংবাদ সন্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন, বিচারপতি মোহাম্মাদ গোলাম রাব্বানী, বিচারপতি কাজী এবাদুল হক, বিচারপতি মমতাজ উদ্দিন আহমেদ, লেখক সাংবাদিক শাহরিয়ার কবির, মুক্তিযোদ্বা ডা. আমজাদ হোসেন, বিচারপতি শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিক, সাবেক আইজিপি নিরাপদ বিশ্লেষক নূরুল আনোয়ার, বঙ্গবন্ধু মেডিকেলের উপাচার্য ডা. কামরুল হাসান প্রমুখ।

সর্বশেষ খবর

আজকের পত্রিকা. কমের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ নিষেধ

Developed by