logo

বুধবার ১১ অক্টোবর ২০১৭, ২৭ আশ্বিন ১৪২৪, ২০ মহররম ১৪৩৮

শিরোনাম

‘জামায়াত সহিংসতা করলে কঠোর জবাব দেয়া হবে’
১১ অক্টোবর, ২০১৭
নিজস্ব প্রতিবেদক
হরতালের নামে নাশকতা করলে জামায়াতকে কঠোর জবাব দেয়া হবে। তাদের সহিংসতার কোনো পজিটিভ রেজাল্ট নেই। বললেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

বুধবার দুপুরে উত্তরার দিয়াবাড়িতে মেট্রোরেলের ডিপো পরিদর্শন শেষে জামায়াতের বৃহস্পতিবার সারাদেশে সকাল-সন্ধ্যা হরতালের প্রসঙ্গে তিনি এসব কথা বলেন।

জামায়াতকে রুখতে আওয়ামী লীগ কি মাঠে থাকবে? এমন প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, আওয়ামী লীগের মাঠে থাকার কোন প্রয়োজন নেই। কেননা আওয়ামী লীগ মনে করে, ‘রাজপথ দখল করে কোন কিছু করার মতো সামর্থ্য আওয়ামী লীগ বিরোধী কোন রাজনৈতিক শক্তির নেই।’

প্রধান বিচারপতির ছুটি নিয়ে বিএনপির সমালোচনার জবাবে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘তিনি অসুস্থ, ছুটি নিতেই পারেন। আর তাকে জোর করে বিদেশ পাঠানো হলে উনি তো সেটা বলতেন। উনি তো মেরুদণ্ডহীন না।’

মেট্রোরেল প্রকল্প সম্পর্কে তিনি আরো বলেন, গুলশান হামলার কারণে মেট্রোরেলের কাজে বিঘ্ন ঘটলেও সরকার দ্রুত এই প্রকল্প শেষ করতে চায়। পুরোদমে মেট্রোরেলের কাজ চলছে। আশা করি আগামী ছয় মাসের মধ্যে এ প্রকল্প দৃশ্যমান হবে।

এসময় সেতুমন্ত্রী বলেন, হলি আর্টিজানের ঘটনা মেট্রোরেলের জন্য বিশাল ধাক্কা ছিল। জাপানি কয়েকজন কনসাল্টেন্ট ওই নৃশংসতায় নিহত হয়েছেন। আমরা তো ভেবেছিলাম- এই ঘটনার পর তারা ফিরে যায় কি না। কিন্তু ৫-৬ মাসের মধ্যে আবার কাজ শুরু হয়েছে। দ্রুততার সঙ্গে কাজ এগিয়ে যাচ্ছে। আশা করছি, আগামী ৬ মাসের মধ্যে তরুণ প্রজন্মের স্বপ্নের মেগা প্রজেক্ট মেট্রোরেল দৃশ্যমান হবে।

এখন পর্যন্ত রেলের ১০-১২ শতাংশ কাজ সম্পন্ন হয়েছে বলে সাংবাদিকদের জানান ওবায়দুল কাদের।

তিনি জানান, প্রথম পর্যায়ে ২০১৯ সালের মধ্যে দিয়াবাড়ি থেকে আগারগাঁও পর্যন্ত মেট্রোরেল চালু করার চিন্তা রয়েছে। কাজ সেভাবেই এগোচ্ছে। দ্বিতীয় পর্যায়ে ২০২০ সালের মধ্যে বাংলাদেশ ব্যাংক পর্যন্ত মেট্রোরেল হবে।

সর্বশেষ খবর

আজকের পত্রিকা. কমের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ নিষেধ

Developed by