logo

বৃহস্পতিবার ১৯ অক্টোবর ২০১৭, ৪ কার্তিক ১৪২৪, ২৮ মহররম ১৪৩৯

শিরোনাম

এই ঘটনা গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রের সভ্যতার উপর কালিমা: হাইকোর্ট
১৯ অক্টোবর, ২০১৭
নিজস্ব প্রতিবেদক
তিনটি হাসপাতালে যাওয়ার পরও পারভীন আক্তার নামের অন্তঃসত্ত্বা মা প্রাপ্য চিকিৎসা পেতে ব্যর্থ হওয়া এবং নবজাতকের মৃত্যুর ঘটনাকে দুঃখজনক বলেছেন হাইকোর্ট। এসময় বেঞ্চের জ্যেষ্ঠ বিচারপতি কাজী রেজা-উল হক বলেন: এই ঘটনা একটি গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রের সভ্যতার উপর কালিমা লেপন।

তিনি আরও বলেন, আমাদের স্বাস্থ্যসেবায় গরীব জনগোষ্ঠী অত্যন্ত নিগৃহীত। তাদের চিকিৎসার অবহেলার যে দৃষ্টান্ত, এক্ষেত্রে সরকারের আরও সচেতন হতে হবে।

‘তিন হাসপাতাল ঘুরে খোলা স্থানে সন্তান প্রসব’ সংক্রান্ত পত্রিকায় প্রকাশিত প্রতিবেদনের সূত্র ধরে বৃহস্পতিবার বিচারপতি কাজী রেজা-উল হক ও বিচারপতি মোহাম্মদ উল্লাহ’র সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ স্বপ্রণোদিত হয়ে রুল জারি করেন।

রুলে তিনটি হাসপাতালে যাওয়ার পরও অন্তঃসত্ত্বা মা পারভীন আক্তারের প্রাপ্য চিকিৎসা পেতে ব্যর্থ হওয়ার ঘটনায় দায়ী ও দোষী ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে কেন আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে না, তা জানতে চান হাইকোর্ট।

সেই সঙ্গে ওই মা’কে কেন ক্ষতিপূরণ প্রদান করা হবে না রুলে তাও জানতে চাওয়া হয়। এছাড়া এই ঘটনা তদন্ত করে ১৫ দিনের মধ্যে প্রতিবেদন দাখিল করতে আদালত নির্দেশ দেন।

অভিযুক্ত তিনটি হাসপাতাল হলো- আজিমপুর মাতৃসদন ও শিশুস্বাস্থ্য প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠান, ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল এবং স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ।

আগামি ৫ নভেম্বর পরবর্তী আদেশের দিন রেখে স্বাস্থ্য সচিব, পুলিশের মহাপরিদর্শক, সমাজকল্যাণ সচিব, মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক, ঢাকা মেডিকেল কলেজ ও সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজের পরিচালক, আজিমপুর মাতৃসদনের সুপারিন্টেন্ডকে এ রুলের জবাব দিতে বলা হয়।

প্রতিবেদনের সূত্র ধরে একপর্যায়ে আদালত বলেন, অন্তঃসত্ত্বা পারভীন আক্তার গুলিস্তানের গোলাপশাহ মাজারের পাশেই থাকতেন। তার স্বামী তাকে অন্তঃসত্ত্বা অবস্থায় ছেড়ে দেয়। মাত্র ১ হাজার ৫০০ টাকা দিতে না পারায় আজিমপুর মাতৃসদন ও শিশুস্বাস্থ্য প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠান, ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল এবং স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে অন্তঃসত্ত্বা পারভিনকে ফেরত আসতে হয়।

এরপর আজিমপুর মাতৃসদনের গাড়ি পার্কিং এর জায়গায় সন্তান প্রসব করেন পারভিন। প্রথমে নড়াচড়া করলেও কিছুক্ষণের মধ্যেই নবজাতক মারা যায়।

সর্বশেষ খবর

আজকের পত্রিকা. কমের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ নিষেধ

Developed by