logo

রবিবার ১৭ ডিসেম্বর ২০১৭, ৩ পৌষ ১৪২৪, ২৭ রবিউল আউয়াল ১৪৩৯

গ্যাটকো দুর্নীতি মামলা
খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের শুনানি ২১ জানুয়ারি
১৭ ডিসেম্বর, ২০১৭
নিজস্ব প্রতিবেদক
বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াসহ ২১ জনের বিরুদ্ধে গ্যাটকো দুর্নীতি মামলায় অভিযোগ গঠনের শুনানি ২১ জানুয়ারি দিন ধার্য করেছেন আদালত।

আজ রোববার ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৩-এর বিচারক সৈয়দ দিলজার হোসেনের আদালতে অভিযোগ গঠনের শুনানির জন্য দিন ধার্য ছিল। কিন্তু এ মামলার দুই আসামি তানভীর আহমেদ ও গালিব হোসেনের পক্ষে হাইকোর্টের স্থগিতাদেশ থাকায় অভিযোগ গঠনের শুনানি পেছানোর জন্য সময়ের আবেদন করেন তাঁদের আইনজীবীরা। আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বিচারক সময়ের আবেদন মঞ্জুর করে এ দিন ধার্য করেন।

খালেদা জিয়ার আইনজীবী সানাউল্লাহ মিয়া এ বিষয়ে নিশ্চিত করেছেন।

এ মামলায় গত বছরের ৫ এপ্রিল খালেদা জিয়া আত্মসমর্পণ করে একই আদালত থেকে জামিন নেন। এর আগে গত বছরের ২৩ ফেব্রুয়ারি খালেদা জিয়াকে ১৩ এপ্রিলের মধ্যে আত্মসমর্পণ করার নির্দেশ দেন হাইকোর্ট।

গত বছরের ১৫ ফেব্রুয়ারি খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্যাটকো দুর্নীতি মামলা বিচারিক আদালতে চলবে বলে দেওয়া চূড়ান্ত রায়ের পূর্ণাঙ্গ অনুলিপি প্রকাশ করেন বিচারপতি মো. নূরুজ্জামান ও বিচারপতি আবদুর রবের হাইকোর্ট বেঞ্চ।

এর আগে ২০১৫ সালের ৫ আগস্ট দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) মামলাটি বাতিলে প্রধান আসামি খালেদা জিয়ার করা আবেদন খারিজ করে সংক্ষিপ্ত এ রায়টি দেওয়া হয়।

মামলার অপর আসামিরা হলেন—প্রয়াত মন্ত্রী এম সাইফুর রহমান, আবদুল মান্নান ভূঁইয়া (মৃত), জামায়াতের সাবেক আমির মাওলানা মতিউর রহমান নিজামী (মৃত), সাবেক মন্ত্রী এম শামছুল ইসলাম, এম কে আনোয়ার, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের (চবক) সাবেক চেয়ারম্যান কমডোর জুলফিকার আলী, প্রয়াত মন্ত্রী কর্নেল আকবর হোসেন (অব.), তাঁর স্ত্রী জাহানারা আকবর, দুই ছেলে ইসমাইল হোসেন সায়মন ও এ কে এম মুসা কাজল, এহসান ইউসুফ, সাবেক নৌসচিব জুলফিকার হায়দার চৌধুরী, চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের সাবেক সদস্য এ কে রশিদ উদ্দিন আহমেদ এবং গ্লোবাল অ্যাগ্রো ট্রেড প্রাইভেট লিমিটেডের (গ্যাটকো) পরিচালক শাহজাহান এম হাসিব, খালেদা জিয়ার ছোট ছেলে আরাফাত রহমান কোকো (মৃত), সাবেক মন্ত্রী ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, সাবেক জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী এ কে এম মোশাররফ হোসেন, গ্লোবাল অ্যাগ্রো ট্রেড প্রাইভেট লিমিটেডের (গ্যাটকো) পরিচালক সৈয়দ তানভির আহমেদ ও সৈয়দ গালিব আহমেদ, চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের সাবেক চেয়ারম্যান এ এস এম শাহাদত হোসেন, বন্দরের সাবেক পরিচালক (পরিবহন) এ এম সানোয়ার হোসেন, বন্দরের প্রধান অর্থ ও হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা আহমেদ আবুল কাশেম ও বন্দরের সাবেক সদস্য লুৎফর কবীর।

২০০৭ সালের ২ সেপ্টেম্বর খালেদা জিয়া, তাঁর ছোট ছেলে আরাফাত রহমান কোকোসহ ১৩ জনের বিরুদ্ধে তেজগাঁও থানায় গ্যাটকো দুর্নীতি মামলা দায়ের করেন দুদকের উপপরিচালক গোলাম শাহরিয়ার চৌধুরী।

এই মামলা হওয়ার পরদিনই খালেদা জিয়া ও কোকোকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরবর্তীকালে একই বছরের ১৮ সেপ্টেম্বর মামলাটি অন্তর্ভুক্ত করা হয় জরুরি ক্ষমতা আইনে। পরের বছর ১৩ মে খালেদা জিয়াসহ ২৪ জনের বিরুদ্ধে এ মামলায় অভিযোগপত্র দেওয়া হয়।

মামলায় অভিযোগ করা হয়, আসামিরা পরস্পর যোগসাজশে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান গ্যাটকোকে ঢাকার কমলাপুর আইসিডি ও চট্টগ্রাম বন্দরের কনটেইনার হ্যান্ডলিংয়ের কাজ পাইয়ে দিয়ে রাষ্ট্রের ১৪ কোটি ৫৬ লাখ ৩৭ হাজার ৬১৬ টাকার ক্ষতি করেছেন।

সর্বশেষ খবর

আজকের পত্রিকা. কমের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ নিষেধ

Developed by