logo

রবিবার ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ২৯ মাঘ ১৪২৪, ২৫ জমাদিউল-আউয়াল ১৪৩৯

কারাগার আরাম-আয়েশের জায়গা না: কাদের
১১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮
নিজস্ব প্রতিবেদক
কারাগারে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার অমর্যাদা হচ্ছে না। কারাগার আরাম আয়েশের জায়গা না। তার (খালেদা জিয়া) সঙ্গে কথা বলেই সব সুবিধা দেয়া হচ্ছে। বললেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

রোববার দুপুরে সচিবালয়ে নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, কারাগারে খালেদা জিয়ার অমর্যাদা হচ্ছে না। সাবেক প্রধানমন্ত্রী হিসেবে সম্মান পাচ্ছেন। আক্ষরিক অর্থে ডিভিশন বিষয়টি হয়তো অনুপস্থিত। তবে বেগম জিয়ার মর্যাদা ও গুরুত্ব বিবেচনা করে যে সকল সুযোগ সুবিধা দেয়া হচ্ছে, তা প্রচলিত ডিভিশন সুযোগ সুবিধার চাইতে বেশি।

এদিকে রোববার সকালে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে কারাগারে ডিভিশন দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। বিশেষ জজ-৫ আদালতের বিচারক মো. আখতারুজ্জামান রোববার আবেদনের শুনানি শেষে এ নির্দেশ দেন।

এর আগে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলায় কারাগারে থাকা বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার ডিভিশন চেয়ে আবেদন করা হয়।

খালেদা জিয়া এখন রাজধানীর নাজিমুদ্দিন রোডের সাবেক ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে আছেন। গেলো শনিবার খালেদা জিয়ার সঙ্গে তার পাঁচজন আইনজীবী কারাগারে দেখা করেন।

কারা অধিদপ্তরের ঢাকা বিভাগের ডিআইজি (প্রিজন্স) তৌহিদুল ইসলাম জানিয়েছেন, কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী খালেদা জিয়াকে কারাগারের মূল ফটকের ভেতরে পুরনো অফিস ভবনে রাখা হয়েছে। সিনিয়র জেল সুপারের ওই অফিসকক্ষে একটি খাট, টেবিল, চেয়ার, টিভি ও দুটি ফ্যান রয়েছে। তার চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করতে একজন চিকিৎসক নিয়োগ দেয়া হয়েছে।

গেলো বৃহস্পতিবার জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে ৫ বছর এবং তারেক রহমানসহ বাকি আসামিদের ১০ বছর করে সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। রাজধানীর বকশীবাজারের কারা অধিদপ্তরের প্যারেড গ্রাউন্ডে স্থাপিত বিশেষ জজ আদালত এ রায় ঘোষণা করেন। একই সঙ্গে খালেদা জিয়া ছাড়া বাকি আসামিদের ২ কোটি ১০ লাখ ৭১ হাজার ৬৭১ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

সর্বশেষ খবর

আজকের পত্রিকা. কমের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ নিষেধ

Developed by