logo

বুধবার ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ২ ফাল্গুন ১৪২৪, ২৮ জমাদিউল-আউয়াল ১৪৩৯

শিরোনাম

খালেদার মুক্তির দাবিতে প্রতীকী অনশনে আইনজীবীরা
১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮
নিজস্ব প্রতিবেদক
জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে মামলায় পাঁচ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেওয়ার প্রতিবাদে গণঅনশন করছেন ঢাকা বারের বিএনপিপন্থী আইনজীবীরা।

আজ বুধবার ঢাকার মহানগর দায়রা জজ আদালত প্রাঙ্গণে বিএনপিপন্থী আইনজীবীরা এই প্রতীকী গণঅনশন করেন।

অনশনে ঢাকা বারের সাবেক ও বর্তমান সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকসহ শতাধিক নেতাকর্মী অংশ নেন।

আইনজীবী আবুল কালাম আজাদ বলেন, গণতন্ত্রের স্বার্থে এবং দেশে প্রতিযোগিতামূলক নির্বাচন ও উন্নয়নের জন্য খালেদা জিয়ার মুক্তি পাওয়া উচিত। খালেদা জিয়াকে সঠিক আইনি প্রক্রিয়ার মাধ্যমে মুক্ত করে আনবেন বলেও প্রত্যয় ব্যক্ত করেন তিনি।

আরেক আইনজীবী শাহিনা হক বিউটি বলেন, ‘ড. আখতারুজ্জামানের আদালতে ২০০৪ সাল থেকে আমার একটি হত্যা মামলা আছে, কিন্তু এ মামলা এখনো সুরাহা হয়নি। খালেদা জিয়ার মামলাটি খুব দ্রুত রায় দেওয়ায় বোঝাই যাচ্ছে, সেখানে আসলে কী ঘটেছে।’

খালেদা জিয়া একদিন না একদিন মুক্ত হবেনই বলে মন্তব্য করেন এই আইনজীবী।

গত ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার রায় ঘোষণা করেন বিশেষ আদালতের বিচারক ডা. মো. আখতারুজ্জামান। রায়ে তিনি সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেন। এ ছাড়া বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানসহ পাঁচ আসামিকে ১০ বছর করে কারাদণ্ড এবং দুই কোটি ১০ লাখ টাকা করে জরিমানা করা হয়।

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, জিয়া অরফানেজ ট্রাস্টের দুই কোটি ১০ লাখ ৭১ হাজার ৬৪৩ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ এনে খালেদা জিয়া, তারেক রহমানসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে ২০০৮ সালের ৩ জুলাই রমনা থানায় মামলা করে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

২০১০ সালের ৫ আগস্ট আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করেন দুদকের উপপরিচালক হারুন-আর রশিদ। ২০১৪ সালের ১৯ মার্চ তাঁদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন ঢাকার তৃতীয় বিশেষ জজ আদালতের বিচারক বাসুদেব রায়।

সর্বশেষ খবর

আজকের পত্রিকা. কমের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ নিষেধ

Developed by