logo

বৃহস্পতিবার ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ১০ ফাল্গুন ১৪২৪, ৫ জমাদিউস সানি ১৪৩৯

শান্তি-নিরাপত্তায় রক্ষায় সেনাবাহিনীকে প্রস্তুত থাকতে হবে : প্রধানমন্ত্রী
২২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮
নিজস্ব প্রতিবেদক
দেশের এবং বিশ্বের শান্তি-শৃঙ্খলা ও নিরাপত্তা রক্ষায় সর্বদা সেনাবাহিনীকে প্রস্তুত থাকতে হবে। সংবিধান ও দেশের সার্বভৌমত্ব সুরক্ষায় সেনাবাহিনীকে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে। বললেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বৃহস্পতিবার সকালে নাটোরের কাদিরাবাদ সেনানিবাসের সেনাবাহিনীর ইঞ্জিনিয়ারিং কোরের ৬ষ্ঠ কোর পুনর্মিলনী-২০১৮ অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। বেলা সাড়ে ১১টায় তিনি অনুষ্ঠানে যোগদান করেন। পরে প্রধানমন্ত্রী কুচকাওয়াজ পরিদর্শন করেন।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ এখন ডিজিটাল হয়েছে। বিশ্বের উন্নত দেশের সঙ্গে তাল মিলিয়ে ডিজিটাল খাতে অবদান রাখছে বাংলাদেশ। অবকাঠামো উন্নয়ন ও বিদ্যুৎ খাতে উন্নয়ন হয়েছে। ৫ কোটি মানুষ নিম্নবিত্ত থেকে মধ্যবিত্ত থেকে ওঠে এসেছে। উন্নয়ন প্রকল্পের ৯০ ভাগ নিজস্ব অর্থায়নে ব্যয় করা হয়েছে।

এর আগে সকালে সাড়ে ৯টার দিকে কাদিরাবাদ সেনানিবাসের উদ্দেশে তেজগাঁও পুরনো বিমানবন্দর থেকে যাত্রা করেন।

বিকেল ৩টায় রাজশাহী সরকারি হাইমাদরাসা মাঠে আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভায় ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী। এর আগে তিনি রাজশাহীতে বেশ কিছু উন্নয়ন কাজের উদ্বোধন ও ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করবেন।

এ সফরে প্রধানমন্ত্রী ৩১টি উন্নয়ন প্রকল্পের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন ও ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন। প্রধানমন্ত্রীর সফরকে কেন্দ্র করে রাজশাহী ও নাটোরের সড়কগুলো ব্যানার, বিলবোর্ড, তোরণসহ বর্ণিল সাজে সাজানো হয়েছে। এছাড়া চার স্তরের বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়েছে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী।

তিনি বলেন, ২০০৯ সালে আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আসার পর ফোর্সেস গোল ২০৩০ অনুযায়ী সেনাবাহিনীর আধুনিকায়নে নানা উদ্যোগ নেয়া হয়। সেনাবাহিনীতে অনেক ইনফ্রেন্টি রেজিমেন্ট, আধুনিক যানবাহন, হেলিকপ্টার, যুদ্ধাস্ত্র এবং অন্যান্য সরঞ্জাম সংযোজনের পাশাপাশি সিএমএইচে উন্নতমানের চিকিৎসা সেবার ব্যবস্থা করা হয়েছে। পাশাপাশি সেনা সদস্যদের বেতন ও রেশন বৃদ্ধি, উন্নতমানের প্রশিক্ষণ, আবাসন, ব্যারাক ও মেসের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠা করেছি। থ্রিজির পরে ফোরজি যুগে প্রবেশ করেছে বাংলাদেশ। পরমাণু বিদ্যুৎকেন্দ্র, মেট্রোরেল, পায়রা বন্দর, কর্ণফুলী নদীর তলদেশে টানেল, এলএনজি টার্মিনাল, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট, ‘ষড়যন্ত্র’ পায়ে ঠেলে নিজ অর্থে পদ্মাসেতু নির্মাণ প্রকল্প করছে বর্তমান সরকার।

তিনি বলেন, আমরা বাংলাদেশকে বিশ্বের মর্যাদার আসনে প্রতিষ্ঠিত করতে চাই। এজন্য সকলকে এক সাথে কাজ করতে হবে। কোন অশুভ ও স্বাধীনতাবিরোধী শক্তি যেন দেশের অগ্রযাত্রাকে ব্যাহত করতে না পারে, সে জন্য সকলকে সজাগ থাকতে হবে।

সর্বশেষ খবর

আজকের পত্রিকা. কমের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ নিষেধ

Developed by