logo

শনিবার, ২১ এপ্রিল ২০১৮, ৮ বৈশাখ ১৪২৫, ৪ শাবান ১৪৩৯

আচরণবিধি মেনে প্রচারণা চালাতে জাহাঙ্গীরকে অনুরোধ হাসানের
২১ এপ্রিল, ২০১৮
নউজ ডেস্ক
নির্বাচনী আইন ও আচরণবিধি মেনে প্রচারণা চালাতে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী জাহাঙ্গীর আলমকে অনুরোধ করেছেন বিএনপির প্রার্থী হাসান উদ্দিন সরকার। শুক্রবার চৌরাস্তা কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে জুমার নামাজ আদায় শেষে দুই প্রার্থী কুশর বিনিময়ের সময় এই অনুরোধ জানান হাসান।

এদিকে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী জাহাঙ্গীর আলমকে জাতীয় পার্টি (জাপা) সমর্থন দিয়েছে। দলের কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্ত অনুসারে এ সমর্থন দেয়া হয়েছে বলে জানান জাপার স্থানীয় নেতারা।

জাপা নেতারা জানান, ১৪ দলীয় জোটের অন্যতম শরিক দল জাপার চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ গত রাতে আওয়ামী লীগ প্রার্থী জাহাঙ্গীর আলমের পক্ষে কাজ করার জন্য টেলিফোনে নির্দেশ দেন। এরপর দলের নেতাকর্মীরা জাহাঙ্গীর আলমের ছয়দানার বাসভবনে গিয়ে তার সঙ্গে দেখা করেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে মহানগর জাতীয় পার্টির সভাপতি আব্দুস সাত্তার মিয়া জানান, পার্টির চেয়ারম্যান টেলিফোনে বলেছেন, যেহেতু দল এখানে প্রার্থী দেয়নি তাই আওয়ামী লীগ প্রার্থী জাহাঙ্গীর আলমকে সমর্থন দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

১৫ মে নির্বাচনে জয়লাভে নানা কৌশল ও প্রচারণা নিয়ে এখন ঘরোয়া বৈঠক করছেন বিএনপি, আওয়ামী লীগসহ অপর প্রার্থীরা। চলছে নির্বাচনী ইশতিহার তৈরির কাজ।

জাহাঙ্গীর আলম দলের জেলা ও কেন্দ্রীয় পর্যায়ের নেতাদের সঙ্গে আলাপ-আলোচনা করে নির্বাচনের করণীয় ঠিক করছেন। অপর দিকে বিএনপির প্রার্থী হাসান উদ্দিন সরকারও দলের স্থায়ী কমিটি ও কেন্দ্রীয় কমিটিসহ জেলা পর্যায়ের নেতাদের সঙ্গে ইশতিহার নিয়ে আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছেন।

আজ বেলা ১১টায় গাজীপুর মহানগর হিন্দু বৌদ্ধ খৃষ্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক সঞ্জিত কুমার মল্লিক বাবুর নেতৃত্বে সংগঠনের নেতাকর্মী ও মহানগর পূজা উৎযাপন কমিটির সদস্যরা দেখা করেন জাহাঙ্গীর আলমের সঙ্গে। দুপুরে তিনি চৌরাস্তা কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে জুমার নামাজ আদায় করেন এবং নামাজের আগে উপস্থিত মুসল্লিদের উদ্দেশে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য দেন।

একই মসজিদে নামাজ আদায় করেন বিএনপির প্রার্থী হাসান উদ্দিন সরকার। নামাজ শেষে দুই মেয়র প্রার্থী পরস্পর কুশল বিনিময় করেন। এ সময় হাসান সরকার নির্বাচনী বিধিবিধান মেনে প্রচারণা করার জন্য জাহাঙ্গীরকে অনুরোধ করেন।

এদিকে, মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই শেষে এক মেয়র প্রার্থী, ১৯ জন সাধারণ কাউন্সিলর ও ৩ জন সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল করেন রিটার্নিং কর্মকর্তা। বৃহস্পতিবার এসব প্রার্থীদের মধ্যে ১৫ জন কাউন্সিলর প্রার্থী মনোনয়নপত্র ফিরে পেতে ঢাকায় নির্বাচন অফিসে আপিল করেন। আপিল শুনানি শেষে ১২ জন সাধারণ কাউন্সিলর ও ৩ জন নারী কাউন্সিলর প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করা হয়।

সর্বশেষ খবর

আজকের পত্রিকা. কমের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ নিষেধ

Developed by