logo

সোমবার, ০৯ জুলাই ২০১৮, ২৫ আষাঢ় ১৪২৫, ২৪ শাওয়াল ১৪৩৯

এক সপ্তাহের মধ্যে এমপিওভুক্তির সমাধান চান নাগরিক সমাজ
০৯ জুলাই, ২০১৮
নিউজ ডেস্ক
আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তির বিষয়টি সুরাহার আহ্বান জানিয়েছেন নাগরিক সমাজের নেতারা। সোমবার নাগরিক সমাজের পক্ষ থেকে এ দাবি জানিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) সিনেট সদস্য রঞ্জিত কুমার সাহা।

নন-এমপিও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক্ষক-কর্মচারীদের দ্বিতীয় দফায় আন্দোলনের আজ (সোমবার) ৩০তম দিন ও আমরণ অনশনের ১৫তম দিন চলছে। সোমবার দুপুরে শিক্ষক-কর্মচারীদের আন্দোলনে সংহতি প্রকাশ করে অংশ নেন চিকিৎসকদের সংগঠন ‘ডক্টর্স ফর হেল্থ অ্যান্ড এনভায়রনমেন্টের অধ্যক্ষ মো. আবু সাঈদ, শিক্ষাবার্তার সম্পাদক এ.এন রাশেদা, সিপিবির সাধারণ সম্পাদক রুহিন হোসেন প্রিন্স, কমিউনিস্ট পার্টির নেত্রী রাশিদা কুদ্দুস বানু, সিপিবির নারী সেলের রিনি চৌধুরী। শিক্ষক-কর্মচারীদের আন্দোলনে সংহতি প্রকাশ করে রঞ্জিত কুমার সাহা জাগো নিউজকে বলেন, সংবিধান অনুযায়ী নাগরিকদের প্রধান মৌলিক অধিকার হচ্ছে খাদ্য, বস্ত্র, বাসস্থান, শিক্ষা ও চিকিৎসা। সংবিধান অনুযায়ী শিক্ষকরা তাদের বেতনভাতা পাবেন সেটাই স্বাভাবিক। কিন্তু প্রাতিষ্ঠানিক স্বীকৃতির পরও বেতন ভাতা না পাওয়া সংবিধানের লঙ্ঘন। শিক্ষক হিসেবে রাস্তায় বসে রুটি রুজির জন্য অনশন করতে দেখাও আমাদের জন্য লজ্জার। এ লজ্জার বিষয়টি এক মাস ধরে দেখছি, কিন্তু কোনো সুরাহা দেখিনি।

তিনি বলেন, কোথায় ফাঁক-ফোকর তা আমাদেরই খুঁজে বের করতে হবে। শুধু কথায় নয়, সমাধান জরুরি। আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে এমপিওভুক্তি সমস্যার সমাধানে কার্যকরী পদক্ষেপ নেয়ার জন্য আমরা নাগরিক সমাজের পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রীর প্রতি জোর আহ্বান জানান তিনি।

চিকিৎসকদের সংগঠন ‘ডক্টর্স ফর হেল্থ অ্যান্ড এনভায়রনমেন্টের অধ্যক্ষ মো. আবু সাঈদ বলেন, সরকারের সদিচ্ছার প্রকট অভাব লক্ষ্য করছি। রাষ্ট্রটি যে নাগরিকদের তা বোঝা যাচ্ছে না। নইলে শিক্ষকরা রুটি রুজির আন্দোলন করবে কেন? কেন স্বীকৃতি পাবার পরও তারা বেতনভাতা পাবেন না।

তিনি বলেন, অর্থমন্ত্রী এমপিওভুক্তির দাবিকে রাবিশ বলতে পারেন না। এটা নাগরিক হিসেবে মৌলিক অধিকার। সরকার চাইলেই এ সমস্যার সমাধান সম্ভব বলেও উল্লেখ করেন তিনি। নন-এমপিও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক্ষক কর্মচারী ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ ড. বিনয় ভূষণ রায় বলেন, রোদে পুড়ে, বৃষ্টিতে ভিতে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনের ফুটপাতে অবস্থান নিয়ে আন্দোলন করছি। দাবি একটাই নন এমপিও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীদের বেতন-ভাতা নিশ্চিত করা।

তিনি বলেন, আমাদের পক্ষ থেকে তিনটি প্রস্তাবনা পেশ করেছি গতকাল শিক্ষা সচিবের কাছে। তিনি প্রধানমন্ত্রীর কাছে আন্দোলনরত শিক্ষক-কর্মচারীদের এ তিন প্রস্তাবনার কপি পৌঁছাতে চেয়েছেন। শিক্ষা মন্ত্রণালয় কার্যকরী পদক্ষেপ নিলে এমপিওভুক্তির সমস্যা সমাধান হবে বলে উল্লেখ করেন তিনি।

উল্লেখ্য যে, এমপিওভুক্তির দাবিতে গত ১০ জুন থেকে রাজপথে আন্দোলন কর্মসূচি চালিয়ে আসছেন নন-এমপিও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীরা।

সর্বশেষ খবর

আজকের পত্রিকা. কমের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ নিষেধ

Developed by