logo

রোববার, ১৪ অক্টোবর ২০১৮, ২৯ আশ্বিন ১৪২৫, ০৩ সফর ১৪৪০

গুলি করলে করুক, সংগ্রাম করব: ড. কামাল
১৪ অক্টোবর, ২০১৮
নিউজ ডেস্ক
বিএনপির সঙ্গে ঐক্যের ঘোষণা দেয়া সংবাদ সম্মেলনে ড. কামাল হোসেন জানিয়েছেন, আন্দোলনের জন্য তিনি কতটা উদগ্রীব। বলেছেন, গুলি করে মেরে ফেললেও পিছপা হবেন না। জনগণের দাবি আদায় করবেনই।

শনিবার জাতীয় প্রেসক্লাবে বহুল আলোচিত এই ঐক্যের সংবাদ সম্মেলন হয়। এতদিন এই জোটের নাম উঠে এসেছিল ‘জাতীয় ঐক্য’। তবে আজ নাম দেয়া হয় ‘জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট’। শরিক: বিএনপি, কামাল হোসেনের জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়া এবং চেয়ারম্যান এ কিউ এম বদরুদ্দোজা চৌধুরীকে বাদ দিয়ে যুক্তফ্রন্ট।

সংবাদ সম্মেলনে কথা বললেন ফ্রন্টের প্রায় সব শীর্ষস্থানীয় নেতা। তবে, প্রশ্ন নিলেন না কেউ।

ঐক্য গড়ে সংগ্রাম হবে জানিয়ে ড. কামাল বলেন, ‘আমাকে যদি কেউ বলে, আপনাকে গুলি করব। করুক! আমার যদি মুত্যু লেখা থাকে কেউ বাঁচাতে পারবে না। গণতন্ত্র আমাদের মৌলিক অধিকার, এই অধিকার আদায়ের জন্য আমরা সংগ্রাম করব। এই দেশের মালিক জনগণ।’

‘দেশের মালিক জনগণ, দেশে কোটি কোটি জনগণ আছে। আমরা কিসের ভয় করব? কার কাছে কত ট্যাংক, কত কামান আছে? কত গুলি আছে? আমি ভয়ে ভীত না। আমরা কোন হুমকি দিয়ে কথা বলছি না। আমি বলছি, আপনি আমাকে হুমকি দিবেন না।’

সরকারকে ড. কামাল বলেন, ‘এখানে দায়িত্বশীল ব্যক্তিরা দাবি জানাচ্ছে। বৈধ সরকার গঠন করতে হলে অবাধ সুষ্ঠু নিরপেক্ষ নির্বাচন দরকার। আইনমন্ত্রী হোক, অ্যাটর্নি জেনারেল হোক, এসে বলুক এর কোন বিকল্প আছে।’

‘সুষ্ঠু ভোট হতে হবে, যেখানে নিজের ভোট নিজে দেবে। কোন রকমের পেশীশক্তির, কালো টাকার প্রভাব মুক্ত ভোট হতে হবে। এই নির্বাচন আমাদের দাবি।’



ঐক্যের শিক্ষা জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কাছ থেকে পেয়েছেন বলেও জানান ড. কামাল। বলেন, ‘দাবি আদায় করা শিখিয়েছেন বঙ্গবন্ধু। আমার শিক্ষক ছিল বঙ্গবন্ধু। তার নিঃস্বার্থ কর্মী হিসেবে তার সাথে কাজ করার সুযোগ পেয়েছি। প্রশিক্ষণ পেয়েছি তার কাছে। জনগণের শক্তি আমি দেখেছি, বঙ্গবন্ধুকে বলতে শুনেছি বাংলার মানুষ ঐক্যবদ্ধ হলে কেউ তাদের দমাতে পারবে না।’

‘আমাদের শক্তি হলো জনগণের শক্তি, এটা অন্যকোন শক্তি না। এই শক্তি আমাদের অতীতে দেখিয়ে দিয়েছে, ভাষা আন্দোলন থেকে শুরু করে ছয় দফা এগার দফা আন্দোলন, স্বাধীনতার সংগ্রামে বিজয় এনেছে জাতীয় ঐক্য। কীভাবে হারানো গণতন্ত্রকে ফিরে আনতে পারবে জনগণের ঐক্য।’

এই ঐক্য অতীতে কীভাবে সাফল্য বয়ে এনেছে সেটাও তুলে ধরেন ঐক্যফ্রন্টের নেতা। বলেন, ‘আমাদের জীবনে আমরা এই জনগণের শক্তি দেখেছি। বাঙালিরা লক্ষ লক্ষ জীবন দিয়ে প্রমাণ করেছি আমরা আপোষ করি না। মানুষের অধিকারের জন্য আমরা জীবনের ঝুঁকি নিতে পারি।’

সংবাদ সম্মেলনে কথা বলেন, বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, মওদুদ আহমদ, জেএসডি নেতা আ স ম আবদুর রব, নাগরিক ঐক্যের মাহমুমুদ রহমান মান্না, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মওদুদ আহমদ, ঐক্যের আলোচনায় মধ্যস্ততা করা জাফরুল্লাহ চৌধুরী, গণফোরাম নেতা মোস্তফা মহসিন মণ্টু, কামাল হোসেনের জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার নেতা আ ব ম মোস্তফা আমিন।

সংবাদ সম্মেলনে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তিসহ সাত দফা দাবি জানানো হয়। পাশাপাশি লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য হিসেবে ১১টি কথা জানানো হয়।

ভবিষ্যত কর্মসূচি হিসেবে কোনো ঘোষণা দেয়া হয়নি সংবাদ সম্মেলনে। তবে আপাতত বিভিন্ন মাজার ঘুরে গণসংযোগ করার কথা জানান আ স ম রব।

সর্বশেষ খবর

আজকের পত্রিকা. কমের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ নিষেধ

Developed by