logo

বুধবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৮, ২ কার্তিক ১৪২৫, ০৬ সফর ১৪৪০

তফসিলের আগেই দেশে ফিরবেন মাহবুব তালুকদার
১৭ অক্টোবর, ২০১৮
নিউজ ডেস্ক
অন্যান্য নির্বাচন কমিশনারদের সঙ্গে নিজের বিরোধের মধ্যেই যুক্তরাষ্ট্র সফরে যাচ্ছেন নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার। তবে তার এ সফরকে ব্যক্তিগত আখ্যা দিয়ে তিনি বলেছেন, জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার আগেই দেশে ফিরে আসবেন। এ মাসে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করবে ইসি। সেখানে তিনি থাকতে পারবেন না। এমনকি নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা বিষয়ক কমিশন বৈঠকেও থাকছেন না।

বুধবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ের নির্বাচন ভবনে নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের একথা জানান তিনি। ৩১ অক্টোবর দেশে ফিরবেন বলে জানা গেছে।


মাহবুব তালুকদার বলেন, আমি তফসিলের আগেই চলে আসব। সে জন্যই আমি এই সময়ে যাচ্ছি। আমার ছেলে কানাডা থেকে আমেরিকায় আসবে। আমি ঢাকা থেকে মেয়েকে নিয়ে যাচ্ছি, আমার ভাইও সেখানে আসবে। পরিবারের সবাই সেখানে একত্রিত হব। একমাস আগেই আমি টিকিট কেটে রেখেছি।

রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সাক্ষাতের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সাক্ষাতটা মিস করব। তবে দেশে এসে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে আবার দেখা করার চেষ্টা করব। রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সমাবর্তনের দিনও দেখা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

এদিকে তফসিল ঘোষণার আগে আগামী সপ্তাহে আরেকটি সভা করবে নির্বাচন কমিশন। এই বৈঠকে তফসিলের তারিখ চূড়ান্ত হওয়ার কথা রয়েছে। সে সময়ও দেশের বাইরে থাকবেন তিনি। ফলে সভায় অংশ নিতে পারছেন না এই নির্বাচন কমিশনার।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এটা কোনো বিষয় নয়।

নির্বাচন কমিশন (ইসি) সভায় নিজের বক্তব্য পেশ করার সুযোগ না পাওয়ায় সোমবার (১৫ অক্টোবর) ‘অপমানিত বোধ করেছেন’ বলে বৈঠক থেকে বেরিয়ে আসেন তিনি। পরে সংবাদ সম্মলনে বলেন, সভায় কথা বলতে না দেয়ায় তার বাক স্বাধীনতা হরণ করা হয়েছে।

এর আগেও গত ৩০ আগস্ট কমিশনের ৩৫তম সভা থেকেও চলে যান। সেই সময় ইভিএম কেনার বিরোধিতা করে নোট অব ডিসেন্ট (ভিন্নমত) দিয়ে সভা বর্জন করেছিলেন তিনি।

গত বছরের ১৫ ফেব্রুয়ারি বর্তমান কমিশনের পাঁচ সদস্য শপথ নেয়ার পর থেকে কমিশনের মত বিরোধ দেয়া যায়। তবে এটি মূলত নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদারের সঙ্গে অন্য কমিশনারদের। জুলাইয়ে ইসি সচিবালয়ের ৩৩ জন কর্মকর্তার বদলি নিয়ে বিরোধ প্রকাশ্যে আসে। এরপর জাতীয় নির্বাচনে সেনা মোতায়েন, সিটি নির্বাচনে এমপিদের প্রচারের সুযোগ দেয়া, ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) ব্যবহারসহ বিভিন্ন বিষয়ে ইসির মতবিরোধ দেখা দেয়। বরিশাল সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন নিয়েও কমিশনে মতবিরোধ তৈরি হয়েছিল।

তবে প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নূরুল হুদা দাবি করছেন তাদের মধ্যে এ মতবিরোধী আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কোনো প্রভাব ফেলবে না।

সর্বশেষ খবর

আজকের পত্রিকা. কমের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ নিষেধ

Developed by