logo

মঙ্গলবার, ২০ নভেম্বর ২০১৮, ০৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪০

স্যানিটারি ন্যাপকিনের নেশায় ডুবেছে ইন্দোনেশিয়া!
২০ নভেম্বর, ২০১৮
আন্তর্জাতিক ডেস্ক
নেশার জন্য সাধারণত মাদক, গাঁজা, ড্রাগ, অ্যালকোহল ইত্যাদি ব্যবহার করা হয়। এবার সেই তালিকায় যুক্ত হল আরও একটি নাম- স্যানিটারি ন্যাপকিন। সম্প্রতি স্যানিটারি ন্যাপকিন দিয়ে নেশা করার ট্রেন্ড দেখা গেছে ইন্দোনেশিয়ায়। জানা গেছে, দেশটির টিনএজাররা নেশার জন্য স্যানিটারি ন্যাপকিন এবং কটনপ্যাডের সেদ্ধ করা জুস খাচ্ছে। এতে না কি ভাল নেশা হয়। আর সেই নেশাতেই ডুবেছে তারা।

দেশটির একাধিক সংবাদ মাধ্যমে এই খবরটি প্রকাশিত হয়েছে। সেখানে এই ধরনের আসক্তির ট্রেন্ড ধীরে ধীরে বাড়ছে বলেও জানা গেছে। ইতোমধ্যে জাভা থেকে বেশকিছু টিনএজারকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

কিন্তু কেন এই ধরনের ফর্মুলা ব্যবহার হচ্ছে নেশার জন্য? উত্তর খুঁজতে গিয়ে উঠে এসেছে একাধিক তথ্য।
ইন্দোনেশিয়া ন্যাশানাল ড্রাগ এজেন্সির (বিএনএন) এক রির্পোটে জানায়, স্যানিটারি প্যাডের এই জুসের মধ্যে ক্লোরিন থাকে। যেটি মানবদেহে এক প্রকার হ্যালুসিয়েশন এবং তীব্র নেশার অনুভূতি জাগায়। যার ঘোরে আচ্ছন্ন ইন্দোনেশিয়ার টিনএজাররা।

স্যানিটারি প্যাডের সেদ্ধ জুস খেয়ে নেশা করা ১৪ বছরের এক তরুণ গণমাধ্যমকে জানায়, প্রথমে স্যানিটারি প্যাডকে ৩০ মিনিট ধরে পানিতে ফোটানো হয়। তারপর সেটি থেকে তরল অংশটা বের করে নেয়া হয়। সেটি আবার কন্টেইনারে ভরে কিছু সময় রেখে দেয়া হয়। পরে জুসের মতো করে পান করতে হয়। তবে এর স্বাদ কিছুটা তেতো। প্রায় সারা দিন ধরেই এই জুস খেতে থাকে টিনএজাররা। মূলত দরিদ্র পরিবার এবং পথের বসবাসকারী ছেলেময়েরাই এই নেশাতে আসক্ত হয়ে পড়েছে বলেও জানিয়েছে দেশটির গণমাধ্যমগুলো।

সর্বশেষ খবর

আজকের পত্রিকা. কমের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ নিষেধ

Developed by