logo

বৃহস্পতিবার, ১২ জুলাই ২০১৮, ২৮ আষাঢ় ১৪২৫, ২৭ শাওয়াল ১৪৩৯

শিরোনাম

গ্যাস নেই, মিরপুরে খাবারের দোকানে লম্বা লাইন
১২ জুলাই, ২০১৮
নিউজ ডেস্ক
আজিজুল হাকিম থাকেন মিরপুরের ১১ নম্বরে। বেসরকারি এই চাকরিজীবী গতকালই জানতেন সকাল থেকে রাতঅবধি গ্যাস থাকবে না। ফলে ভাত রান্না করে রেখেছিলেন। কিন্তু অফিস থেকে বাসায় ফিরে বিধিবাম। খাবার নষ্ট হয়ে গেছে। ফ্রিজে রেখেও কাজ হয়নি। এতেই শেষ নয়, মিরপুরের স্বনামধন্য রাব্বানী হোটেলে বিরিয়ানি কিংবা খিচুরি শেষ হয়ে গেছে। আশপাশের দোকানগুলো কাস্টমারেরর চাপে দাম বাড়িয়েছে। বাধ্য হয়েই ডাল-রুটি খেয়েছেন তিনি।

আজিজুলের মতো মিরপুরের অনেক বাসিন্দাই আজ হোটেলে ভিড় জমিয়েছেন। কারণ একটাই গ্যাস নেই। দুপুর পর্যন্ত কোনোভাবে কাটলেও রাতে তো খেতেই হবে। ফলে অনেকে সন্ধ্যাবেলাই কিনে নিয়েছেন রাতের খাবার। হোটেলেও মিলছে না খাবার।


সিলিন্ডার গ্যাসে রান্না হয় এমন রেস্টুরেন্টগুলোতে দুপুর থেকে লম্বা লাইন দেখা গেলেও মিলছে না পর্যাপ্ত খাবার। রাত সাড়ে ৯টায় মিরপুরের রাব্বানী হোটেলে খাবার কিনতে আসা বন্যা বললেন, সকালে ঘুম থেকে উঠেই দেখি গ্যাস নেই। পরে শুনলাম রাত ৮টার দিকে আসবে। সকালে ফল খেয়ে কাটিয়েছি। দুপুরে খেয়েছি ব্রেড। এখন হোটেলে আসলাম।

তিনি বলেন, গ্যাস একটু আসছে। কিন্তু চাপ নেই। আমি আর থাকতে পারলাম না।

হোটেল মালিকদের কাছে জানা গেছে, পূর্ব ঘোষণা দিয়ে গ্যাস সরবরাহ বন্ধ করলেও অনেককেই বিপদে পড়তে হয়েছে। দুপুরের খাবারের জন্য রেস্তোরাঁগুলোতে ব্যাপক ভিড় করতে দেখা যায়। এ সুযোগে রেস্তোরাঁ মালিকরা বাড়তি দামে খাবার বিক্রি করছে। ভিড় থাকায় অনেকে আবার ছুটছেন ফাস্টফুডের দোকানে।

জানতে চাইলে আল্লাহর দান হোটেলের মালিক মমিন জানান, প্রতি প্যাকেট তেহরির দাম ১০ টাকা বাড়িয়েছি। বাবুর্চি ছিল না। মানুষের কথা চিন্তা করে বাড়তি দাম দিয়ে বাবুর্চি এনেছি। এ জন্য দামও বেড়েছে।


উল্লেখ্য, মেট্রোরেলের নির্মাণকাজের জন্য রাজধানীর মিরপুর ও আশপাশের এলাকায় বুধবার সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকবে বলে জানিয়েছিল তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি।

এক বিবৃতিতে তিতাস গ্যাসের পরিচালক (পরিচালন) আশরাফ আলী জানান, মেট্রোরেল নির্মাণ কাজের কারণে এখনও কিছু এলাকায় সংযোগ প্রতিস্থাপন কাজ বাকি রয়েছে। বুধবার মিরপুর ১, ২, ৬, ৭, ১০, ১১, ১২ এর সড়কের উভয় পাশে, ইস্টার্ন হাউজিং, রূপনগর, আরামবাগ, আলুবদি, মিরপুর ক্যান্টনমেন্ট, ডিওএইচএস ও এর আশপাশের এলাকায় প্রতিস্থাপন কাজ চলবে। তাই এলাকাগুলোতে আবাসিক বাণিজ্যিক, শিল্প ও সিএনজি গ্রাহকদের গ্যাস সংযোগ সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত বন্ধ থাকবে।

মেট্রোরেল নির্মাণের কারণে গত বছরও কয়েক দফায় মিরপুর, কাফরুল ও আগারগাঁও এলাকায় গ্যাস সরবরাহ বন্ধ রেখেছিল তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষ। তবে ঘোষণা অনুসারে রাতে গ্যাস আসলেও স্বাভাবিকের টেয়ে কম গ্যাস পাওয়া যাচ্ছে বলে জানিয়েছেন মিরপুরবাসী।

সর্বশেষ খবর

খবর এর আরো খবর

আজকের পত্রিকা. কমের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ নিষেধ

Developed by