logo

সোমবার, ১৮ জানুয়ারি ২০১৬ . ৫ মাঘ ১৪২২ . ৭ রবিউস সানি ১৪৩৭

ভারতে কারাভোগ শেষে দেশে ফিরলো ১৫ শিশু
১৮ জানুয়ারি, ২০১৬

হিলি : ভারতে কারাভোগ শেষে দেশে ফিরেছে ১৫ শিশু - আজকের পত্রিকা

হিলি (দিনাজপুর) প্রতিনিধি
অবৈধপথে ভারতে অনুপ্রবেশের দায়ে আটক বাংলাদেশি ১৫ শিশু ভারতের বালুরঘাট শোভায়ন হোমে (শিশু অবজারভেশন সেন্টার) এক থেকে তিন বছর মেয়াদে কারাভোগ শেষে হিলি ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট পুলিশের কাছে ফেরত দিয়েছে ভারতের হিলি অভিবাসন পুলিশ।

রোববার দুপুর ১২টায় হিলি ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট গেটের শূন্যরেখা দিয়ে ট্রাভেল পারমিটের মাধ্যমে তাদের ভারতের হিলি অভিবাসন কেন্দ্রের (ওসি) মো: নাসির হোসেন হিলি ইমিগ্রেশন চেকপোস্টের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো: রফিকুজ্জামানের নিকট ফেরত দেন। বাংলাদেশ জাতীয় মহিলা আইনজীবী সমিতি ও জাস্টিস এন্ড কেয়ারের উদ্যোগে তাদের দেশে ফেরত আনা হয়। এসময় সেখানে ভারতের হিলি বিএসএফ ক্যাম্প কমান্ডার এসি রাম সিং এবং বিজিবি হিলি সিপি ক্যাম্প কমান্ডার নায়েক সুবেদার ফজলুল হক, জাস্টিস এন্ড কেয়ারের বাংলাদেশ প্রতিনিধি তারিকুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন।

ফেরত আসা শিশুরা হলেন, কুষ্টিয়ার বারেক আলীর ছেলে মইদুল ইসলাম (১৪), একই এলাকার রেজাউল হকের ছেলে মানিক (১৪), নুরু পাগলার ছেলে মো: ঝন্টু (১৫), মোশারোফ হোসেনের ছেলে আশরাফুল মোল্লা (১৫), কুড়িগ্রামের সুধির চন্দ্রের ছেলে কার্তিক কুমার (১৪), একই এলাকার ষষ্টি রায়ের ছেলে প্রসেনজিৎ রায় (৯), গাইবান্ধার আতাউল ইসলামের ছেলে মমিন ইসলাম (১৪), সুনামগঞ্জের সুরুজ মিয়ার ছেলে রাসেল মিয়া (১৩), যশোরের মজিবর শেখের ছেলে রানা শেখ (১০), ঢাকার মজিবর রহমানের ছেলে রিফাত হোসেন আনার (১৪), একই এলাকার আমজাদ খানের ছেলে মো. ফয়সাল (১৫), আনোয়ার হোসেনের ছেলে মো.স্বপন (১২), চুয়াডাঙ্গার জসিম উদ্দিনের ছেলে জিল্লুর রহমান (১৫), ঠাকুরগাওয়ের মহেষ চন্দ্র বর্মনের ছেলে অবিনাশ রায় (১৪), বগুড়ার রোস্তম হালদারের ছেলে সাইফুল হালদার (১৫)।

ফেরত আসা সাইফুল, আশরাফুল, ফয়সাল জানান, বন্ধুর প্রলোভনে পড়ে ভারতে বেড়াতে যাওয়ার জন্য বাসযোগে হিলিতে আসি। পরে দালালের মাধ্যমে হিলি সীমান্তের দক্ষিণপাড়া দিয়ে অবৈধভাবে ভারতে যাই। পরে ভারতের হিলি থেকে কলকাতা যাওয়ার পথে ভারতের বালুরঘাট বাসস্ট্যান্ডে বিএসএফ সদস্যরা বাসে তল্লাশি চালিয়ে আমাদের আটক করে। এমনিভাবে বাকি শিশুরাও কেউ বা বেড়াতে আবার কেউবা কাজের সন্ধানে বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন সীমান্ত দিয়ে অবৈধপথে ভারতে গিয়েছিলেন।

ভারতের দক্ষিণ দিনাজপুরের চাইল্ড লাইনের কো-অর্ডিনেটর সুরুজ দাশ বলেন, ওই শিশুরা বিভিন্ন সময়ে অবৈধপথে ভারতে প্রবেশ করে। মূলত শিশুগুলো কাজের সন্ধানে, কেউ তাদের আত্মীয়ের বাড়িতে বেড়াতে এসেছিল। এরা হিলি, বালুরঘাট, পতিরামের বিভিন্ন স্থানে ধরা পড়েছিল। সীমান্ত রক্ষিবাহিনীর হাতে ধরা পড়ার পরে তাদের আদালতে উপস্থাপন করা হলে তাদের বয়স কম হওয়ায় তাদের বালুরঘাট শোভায়ন হোমে রাখার নির্দেশ দেন। সেখানে তারা এক থেকে তিন বছর বিভিন্ন মেয়াদে আটক থাকেন। প্রত্যাবন চুক্তির মাধ্যমে বাংলাদেশ হাইকমিশন তাদের ট্রাভেল পারমিট দিয়েছিল যার ফলে আজ তাদের বাংলাদেশে হস্তান্তর করা হয়েছে।

বাংলাদেশ জাতীয় মহিলা আইনজীবি সমিতি দিনাজপুরের এরিয়া কোঅর্ডিনেটর সানাউল সায়েম জানান, দীর্ঘ দিন ভারতের শিশু শোভায়ন হোমে আটক থাকা ওই ১৫ শিশুদের কাগজপত্র নিয়ে বাংলাদেশ জাতীয় মহিলা আইনজীবি সমিতি দীর্ঘ আইনি প্রক্রিয়া শেষে এবং বাংলাদেশ সরকারের মাধ্যমে তাদের আজ দেশে ফেরত আনা হয়েছে।

হিলি ইমিগ্রেশন চেকপোস্টের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো: রফিকুজ্জামান জানান, ভারতের হিলি অভিবাসন পুলিশ অবৈধভাবে ভারতে প্রবেশের দায়ে ১৫জন শিশুকে আমাদের নিকট হস্তান্তর করেছে। আমরা শিশুগুলিকে সরকারী বিধি মোতাবেক বুঝিয়ে নিয়ে তাদের অভিভাবকদের নিকট বুঝিয়ে দিয়েছি। ওই শিশুগুলো ভারতের বালুরঘাট শোভায়ন হোমে এক থেকে তিন বছর মেয়াদে আটক ছিলেন।

সর্বশেষ খবর

সারাবাংলা এর আরো খবর

আজকের পত্রিকা. কমের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ নিষেধ

Developed by