logo

শুক্রবার, ৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৬ . ২৩ মাঘ ১৪২২ . ২৫ রবিউস সানি ১৪৩৭

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ১১ ছাত্রলীগ নেতার পঞ্চম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত
০৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬
ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি
শ্রদ্ধা ও ভালোবাসার মধ্যে দিয়ে গতকাল বৃহস্পতিবার ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১১ ছাত্রলীগ নেতাসহ ১২জনের পঞ্চম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে জেলা ছাত্রলীগের উদ্যোগে শোকর‌্যালি, নিহতদের স্মরণে নির্মিত স্মৃতিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণ, আলোচনা সভা, দোয়া ও অসহায় দুস্থদের মধ্যে শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়।

জেলা ছাত্রলীগের উদ্যোগে সকাল সাড়ে ৯টায়  ব্রাহ্মণবাড়িয়া সরকারি কলেজের ক্যাম্পাস থেকে এক শোক র‌্যালি বের হয়। র‌্যালিটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদিক্ষণ শেষে টি.এ. রোডের মঠের গোড়ায় নিহত ১২ জনের স্মরণে নির্মিত স্মৃতি সৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে। পরে সেখানে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মোঃ মাসুম বিল্লাহর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কার্য নির্বাহী কমিটির সদস্য, পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি র.আ.ম. উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী এম.পি। আলোচনা সভা শেষে নিহতদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে দোয়া এবং অসহায় ও গরীবদের মাঝে কম্বল বিতরণ করা হয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা পরিষদ প্রশাসক অ্যাডভোকেট সৈয়দ এ.কে.এম. এমদাদুল বারী, জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আল-মামুন সরকার, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও পৌর মেয়র মোঃ হেলাল উদ্দিন, সহ-সভাপতি তাজ মোহাম্মদ ইয়াছিন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহাবুবুল বারী চৌধুরী মন্টু, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক গোলাম মহিউদ্দিন খান খোকন, সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ শাহ আলম সরকার, প্রচার সম্পাদক সৈয়দ নজরুল ইসলাম প্রমুখ।

উল্লেখ্য ২০১১ সালের ৪ ফেব্রুয়ারি বিকেলে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর আসনের উপ-নির্বাচনে বিজয়ী আওয়ামীলীগ নেতা র.আ.ম. উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী এমপির সফরসঙ্গী হয়ে গোপালগঞ্জের টুিঙ্গপাড়া জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিসৌধ জিয়ারত শেষে ঢাকায় ফেরার পথে ফরিদপুর জেলার ভাঙ্গা উপজেলার সলিলদিয়ায় মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হন ১১ ছাত্রলীগ নেতাসহ ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ১২ সন্তান। এরা হলেন- কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ নেতা মেহেদী আলম শান্ত-(৩১), ব্রাহ্মণবাড়িয়া সরকারি কলেজের সাবেক এজিএস আরিফুল ইসলাম বাবু-(৩০), জেলা ছাত্রলীগ নেতা শওকত হোসেন লিয়েন-(২৮), মোর্শেদ আলম-(২৯), শাহজাহান রহমতুল্লাহ রুমেল-(২৮), অ্যাডভোকেট জিয়াউল আমিন রিয়াদ-(২৯), শেখ রায়হান উদ্দিন-(২৮), হাফেজ আব্দুল্লাহ মাসুদ তানভীর-(২৯), মোঃ ইমরানুর রেজা ইমরান-(২৮), নূরুল আসিফ চৌধুরী (২৮) ও মিজানুর রহমান-(৩৫)। পরদিন ঢাকায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান মোঃ আলমগীর-(২৮)। সড়ক দুর্ঘটনায় আহত হয়ে এখনো পঙ্গুত্ব বরণ করছেন জেলা ছাত্রলীগ জাহিদ হোসেন পাভেল।১২ ছাত্র-নেতার স্মৃতিকে ধরে রাখার জন্য শহরের কেন্দ্রস্থল টি.এ. রোডের মনুমেন্টের পাশে (মঠের গোড়ায়) ৩০ লাখ টাকা ব্যয়ে নির্মিত হয় একটি স্মৃতিসৌধ।

সর্বশেষ খবর

সারাবাংলা এর আরো খবর

আজকের পত্রিকা. কমের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ নিষেধ

Developed by