logo

রবিবার ১৩ আগস্ট ২০১৭, ২৯ শ্রাবণ ১৪২৪, ১৯ জিলকদ ১৪৩৮

শিরোনাম

১০১ বছর বয়সী বাবাকে মারলো ছেলেরা
১৩ আগস্ট, ২০১৭
ঝিনাইদহ প্রতিনিধি
বাবার ৫২ বিঘা জমি জোর করে লিখে নিয়েছেন ছেলেরা। এরপরও তারা ক্ষান্ত হননি। ১০১ বছর বয়সী বৃদ্ধ বাবাকে সব ভাই মিলে কয়েক দফা মেরেছেন। সর্বশেষ তাকে তারা বাড়ি থেকে বের করে দিয়েছেন।

ঘটনাটি ঘটেছে ঝিনাইদহ জেলার শৈলকূপা উপজেলায়। অভাগা ওই বৃদ্ধের নাম জামিরুদ্দিন শেখ।

জামিরুদ্দিন জানান, ৫২ বিঘা সম্পত্তি থাকার পরও তার ৫ ছেলের মধ্যে ৪ ছেলের হাতেই মার খাচ্ছেন প্রতিনিয়ত। বড় ছেলে সাহেব আলী তাকে দুই বার মেরেছে, সেজ ছেলে আইয়ুব আলীও তাকে দুই বার মেরেছে, তৃতীয় ছেলে আলতাফ তাকে মেরেছে ৩ বার আর সর্ব কনিষ্ঠ ছেলে মশিয়ার তাকে মেরেছে দুই বার। বেশ কিছুদিন ছিলেন মেজ ছেলের সঙ্গে। কিন্তু ছেলের বৌ অভিযোগ তুলে বাড়ি থেকে বের করে দিয়েছে।

তিনি জানান, মেজ ছেলের বাড়ি থেকে বের হয়ে সোজা চলে গেলেন বৃদ্ধাশ্রমে। সেখানে ছিলেন প্রায় দুই মাস। সেখান থেকে টেনে-হিঁচড়ে বের করে নিয়ে আসেন বড় ছেলের মেয়ে ও তার জামাই। আবার বড় ছেলের বাড়িতে রেখে আসে তারা। এখন কেউ তার সঙ্গে কোনো কথা বলে না। আর বিভিন্ন অছিলায় আমার উপর চলে শারীরিক নির্যাতন।

এসময় কাঁদতে কাঁদতে ১০১ বছরের জামিরুদ্দিন শেখ বলেন, আল্লাহ এত্তো মানুষেরে নিয়া যায় আমারে ক্যান নিয়া যায় না।

শৈলকূপা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা উসমান গণি জানান, তার অসুস্থতার সুযোগে ৫২ বিঘা সম্পত্তি জোর করে লিখে নিয়েছেন ছেলেরা। আবার শারীরিক নির্যাতনও করছে প্রতিনিয়ত। এরপর নিজের জমি উদ্ধারের জন্য আদালতে মামলা করেন।

জেলা প্রশাসক জাকির হোসেন জানান, তার কাছেও এসেছিলেন জামিরুদ্দিন শেখ। তার করুন কাহিনী শুনে তিনি শৈলকূপা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে নির্দেশ দিয়েছেন দ্রুত ব্যবস্থা নেয়ার।

সর্বশেষ খবর

বিশেষ সংবাদ এর আরো খবর

আজকের পত্রিকা. কমের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ নিষেধ

Developed by